৫ মাস পর দেখা, সীমান্তে মিথিলাকে বরণ করলেন সৃজিত

করোনাভাইরাসের কারণে প্রায় সাড়ে ৫ মাস ধরে দেখা হচ্ছিল না আলোচিত দম্পতি অভিনেত্রী রাফিয়াত রশিদ মিথিলা ও পরিচালক সৃজিত মুখার্জির।

অবশেষে বিশেষ অনুমতি নিয়ে ১৫ আগস্ট সড়ক পথে পেট্রাপোল সীমান্ত দিয়ে মেয়ে আইরাকে নিয়ে শ্বশুরবাড়ি গেছেন মিথিলা। ওইদিন সীমান্তে অপেক্ষায় থাকা সৃজিত স্ত্রী ও মেয়েকে নিয়ে নিজের বাসায় যান।

স্ত্রী মিথিলার ঘরে ফেরার খবর জানিয়ে টুইটারে সৃজিত লিখেছেন, ১৯৪৭ সালের ১৫ আগস্ট বহু মানুষ ঘৃণার কারণে সীমান্ত পাড়ি দিয়েছিলেন। ২০২০ সালের ১৫ আগস্ট দুজন মানুষ ভালোবাসার জন্য সীমান্ত পাড়ি দিলেন।

জানা গেছে, করোনার কারণে ভারত-বাংলাদেশ যাতায়াত বন্ধ থাকলেও বিশেষ অনুমতি নিয়ে সড়ক পথে দেশে ছেড়েছেন মিথিলা। পেট্রাপোল সীমান্ত পার হয়ে মিথিলা ও তার মেয়ে আইরা পশ্চিমবঙ্গে যান।

সীমান্তে সৃজিত হাজির হয়েছিলেন স্ত্রী ও কন্যাকে কলকাতায় নিয়ে যেতে। বাংলাদেশ থেকে ভারতে যাওয়ার সব নিয়মকানুন মেনেই ওইদিন বর্ডার পার হন মিথিলা ও তার মেয়ে।

গত বছরের ৬ ডিসেম্বর বিয়ে করেন কলকাতার জনপ্রিয় পরিচালক সৃজিত মুখার্জি ও বাংলাদেশের অভিনেত্রী রাফিয়াথ রশিদ মিথিলা। এটি তাদের দুজনেরই দ্বিতীয় বিয়ে।

জানা গেছে, মিথিলা-সৃজিতের পরিচয় হয় অর্ণবের একটি মিউজিক ভিডিওতে কাজের মাধ্যমে। সেখানে থেকেই বন্ধুত্ব তারপর প্রেম।

তবে সৃজিতকে বিয়ের আগে বাংলাদেশের নাট্যনির্মাতা ইফতেখার ফাহমির সঙ্গে মিথিলার বেশকিছু অন্তরঙ্গ ছবি ফেসবুকে ভাইরাল হয়।

এর আগে জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী তাহসানের সঙ্গে মিথিলার বিয়ে হয় ২০০৬ সালের ৩ আগস্ট। তাদের বিবাহবিচ্ছেদ হয় ২০১৭ সালের জুলাই মাসে। তাদের ঘরে আইরা তাহরিম খান নামের একটি কন্যা সন্তান রয়েছে।