উত্তর প্রদেশে ২০২২ সালের বিধানসভ নির্বাচনে আমরা ৪০০ আসনে জয়ী হতে পারি : অখিলেশ যাদব

ভারতের উত্তর প্রদেশের সমাজবাদী পার্টির প্রধান অখিলেশ যাদব বলেছেন, আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে উত্তর প্রদেশে এবার আমরা ৪০০ আসনে জয়ী হতে পারি। তিনি আজ (বৃহস্পতিবার) রাজধানী লক্ষনৌয়ে একটি দলীয় কর্মসূচিতে অংশ নেওয়ার আগে সংবাদ সম্মেলনে ওই মন্তব্য করেন।

সাবেক মুখ্যমন্ত্রী অখিলেশ যাদব বিজেপিশাসিত উত্তর প্রদেশ সরকারকে টার্গেট করে বলেন, ‘২০২২ সালের বিধানসভা নির্বাচনে ৩৫০ আসন পাবো বলে এতদিন আমরা দাবি করেছিলাম। কিন্তু এখন দেখছি, মানুষজন বিজেপি’র উপরে এতটাই ক্ষুব্ধ যে ৪০০ আসনে জিততে পারে সমাজবাদী পার্টি। রাজ্যের ব্রাহ্মণ, দলিত, মুসলিমসহ সকলেই বিজেপি’র প্রতি অসন্তুষ্ট। সব আসনের জন্য ওরা প্রার্থীই খুঁজে পাবে না।

উত্তর প্রদেশে ২০২২ সালের ফেব্রুয়ারি-মার্চ নাগাদ বিধানসভা নির্বাচন হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে নির্বাচনী বিশ্লেষকরা মনে করছেন। রাজ্য বিধানসভায় মোট ৪০৩ আসন রয়েছে।

রাজ্যের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে নিয়ে অখিলেশ যাদব মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ সরকারের ব্যর্থতার বিষয়ে উল্লেখ করে বলেন, ‘যোগি সরকারের আমলে অপুষ্টিতে এক নম্বরে উঠে এসেছে উত্তর প্রদেশ। কোভিডের দ্বিতীয় ঢেউয়ের সময়ে গঙ্গায় লাশ ভেসে ওঠার ঘটনা ঘটেছে এখানে। অক্সিজেনের অভাবে বহু মানুষের মৃত্যু হয়েছে। বেকারত্ব বাড়ছে রাজ্যে। প্রতিনিয়ত নারীরা এখানে হেনস্থার সম্মুখীন হন।

মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘মুখ্যমন্ত্রী ল্যাপটপ ব্যবহার করতে জানেন না, তাই সরকার শিক্ষার্থীদের বিনামূল্যে ল্যাপটপ বিতরণ করেনি।

বিজেপি-বিরোধী ফ্রন্ট গঠনের জন্য নিরন্তর প্রচেষ্টার মধ্য দিয়ে, সমস্ত দলকে ঐক্যবদ্ধ করার কাজ করছেন, যাতে একটি সাধারণ শত্রুর বিরুদ্ধে লড়াই করা যায় বলেও মন্তব্য করেন সমাজবাদী পার্টির প্রধান অখিলেশ যাদব।

অন্যদিকে, উত্তর প্রদেশের বিজেপির মুখপাত্র শালভ মণি ত্রিপাঠি পাল্টা জবাবে বলেছেন, সমাজবাদী পার্টি কখনও রাজ্যের কল্যাণ ও উন্নয়নের জন্য কাজ করেনি। তাই নির্বাচনে জেতার জন্য জনগণের সামনে তাদের বলার কিছুই নেই।

সূত্রঃ পার্সটুডে