১৫ কাঠা জমিতে গাঁজা চাষ, অভিযানে গাঁজার গাছ উদ্ধার

মেহেরপুরের গাংনীতে ১৫ কাঠা জমি থেকে বিপুল পরিমাণ গাঁজার গাছ উদ্ধার করেছে গাংনী থানা পুলিশ।

বৃহস্পতিবার সকালে গাংনী উপজেলার পুরাতন মটমুড়া গ্রামের কাশেম আলীর ছেলে দুলালের জমি থেকে গাঁজার গাছগুলো উদ্ধার করে গাংনী থানা পুলিশ।

গাংনী থানার ওসি মো: ওবাইদুর রহমান জানান, মটমুড়া গ্রামের কাশেম আলীর ছেলে দুলাল হোসেন তার বাড়ির পার্শে একটি মাঠে ১৫ কাঠা জমিতে গাঁজা চাষ করছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ সুপারের নির্দেশনা অনুযায়ী অভিযান চালানো হয়।

পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে গাঁজা চাষী দুলাল হোসেন পালিয়ে যায়। তার নামে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করেছে পুলিশ। দুলালকে গ্রফেতাররে চেষ্টা চলছে এবং উদ্ধারকৃত গাঁজার গাছগুলো থানা হফোজতে নেওয়া হয়েছে।

পুলিশ সুপার এসএম মুরাদ আলি জানান, মটমুড়া গ্রামে নিজ বাড়ির পাশে ১৫ কাঠা জমিতে গাঁজা আবাদ করে দুলাল হোসেন। প্রাচীর ও বাঁশঝাড়ে ঘিরে থাকায় আশেপাশের লোকজনের নজরে পড়েনি। মাদক বিরোধী অভিযানে বুধবার রাতে গাংনী থানা পুলশিরে একটি দল গাঁজা বাগানটির সন্ধান পায়।

তার নামে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করেছে পুলিশ। পুলিশের উপস্থিত টের পেয়ে পালিয়ে যায় মাদক ব্যবসায়ী দুলাল হোসেন। তবে তার পরিবারের তিন সদস্যকে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। কারণ এত বড় ঘটনা তার পরিবারের সদস্যরা অবশ্যই জানে।