১০ দেশের রাষ্ট্রদূতকে তলব করল তুরস্ক

আমেরিকা ও ফ্রান্সসহ দশটি দেশের রাষ্ট্রদূত ও চার্জ দ্যা অ্যাফেয়ার্সকে তলব করেছে তুরস্কের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। ফরাসি বংশোদ্ভূত তুর্কি সুশীল সমাজের নেতা ওসমান কাভালার আটক ও মামলা সম্পর্কে বিবৃতি দেয়ার পর এসব রাষ্ট্রদূতকে তলব করে তুরস্ক।

সোমবার এক বিবৃতিতে কানাডা, ডেনমার্ক, ফিনল্যান্ড, ফ্রান্স, জার্মানি, নেদারল্যান্ড, নিউজিল্যান্ড, নরওয়ে, সুইডেন এবং আমেরিকার রাষ্ট্রদূত দ্রুত ওসমান কাভালার মামলা নিষ্পত্তি করার আহ্বান জানিয়েছেন। এই বিবৃতিকে তুরস্ক দায়িত্বজ্ঞানহীন বলে মন্তব্য করেছে। তুর্কি মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে বলেছে, এই বিবৃতি দিয়ে এসব রাষ্ট্রদূত তাদের কূটনীতির সীমা লঙ্ঘন করেছেন। এ ধরনের বিবৃতিকে তুর্কি সরকার অগ্রহণযোগ্য বলেও মন্তব্য করেছে।

আদালতে দোষী প্রমাণিত হওয়া ছাড়াই ৬৪ বছর বয়সী ব্যবসায়ী ও সুশীল সমাজের নেতা কাভালাকে কারাগারে আটক রাখা হয়েছে। ২০১৩ সালে তুরস্কে যে সরকারবিরোধী বিক্ষোভ হয়েছিল তাতে অংশ নেয়া এবং ২০১৬ সালে তুরস্কে যে ব্যর্থ সামরিক অভ্যুত্থানের ঘটনা ঘটেছে তার সাথে যোগসাজশের অভিযোগ এনে কাভালাকে আটক করা হয়েছে।

১০ দেশের রাষ্ট্রদূত তাদের বিবৃতিতে আরো বলেছেন, কাভালার বিচার বিলম্বিত হওয়ায় গণতন্ত্রের প্রতি তুর্কি সরকারের শ্রদ্ধা নিয়ে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। একইভাবে প্রশ্ন উঠেছে আইনের শাসন এবং তুর্কি বিচারব্যবস্থার স্বচ্ছতা নিয়ে।

২০১৯ সালে ইউরোপের মানবাধিকার বিষয়ক আদালত কাভালাকে দ্রুত মুক্তি দেয়ার জন্য তুর্কি সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছিল।

সূএঃ পার্সটুডে