হজ করতে মক্কায় ঢোকার চেষ্টা, ২৪৪ জনকে কারাগারে প্রেরণ

মহামারি করোনা ভাইরাসের কারণে এবারের হজ পালন একেবারেই আলাদা নিয়মে হচ্ছে। এবার মাত্র ১০ হাজার জনকে হজ পালনের অনুমতি দেয়া হয়েছে। এদিকে হজ পালনের অনুমতি না থাকার পরেও হজের জন্য পবিত্র মক্কা নগরীতে প্রবেশের চেষ্টার দায়ে শতাধিক ব্যক্তিকে আটক করেছে সৌদি আরবের নিরাপত্তা বাহিনী। মধ্যপ্রাচ্য ভিত্তিক বার্তা সংস্থা জানিয়েছে এ ঘটনায় ২৪৪ জনকে আটক করা হয়েছে।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের কাছে এটা প্রমাণিত হয়েছে যে, ওই ব্যক্তিরা মক্কা অভিমুখে যাত্রা করেছিল। এই হজের মৌসুমে করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে নেওয়া বিধিনিষেধ মেনে চলতে সবার প্রতি আহ্বান জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। সৌদি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেছে, বিনা অনুমতিতে কেউ মক্কায় প্রবেশ করলে তাকে দেশছাড়া করার পাশাপাশি ১০০ রিয়াল জরিমানা করা হবে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যার পর থেকে সৌদি আরবে পবিত্র হজের কার্যক্রম শুরু হয়। বৃহস্পতিবার হজের মূল আনুষ্ঠানিকতা পালিত হচ্ছে। তবে করোনা পরিস্থিতির ফলে অন্যান্য বারের চেয়ে এবার খুবই সীমিত পরিসরে হজ পালনের অনুমতি দিয়েছে সৌদি সরকার। গত বছর যেখানে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে প্রায় ২৫ লাখ মানুষ পবিত্র হজ পালন করেছিলেন, সেখানে এবার এ সুযোগ পাচ্ছেন মাত্র ১০ হাজার জন। তাদের সবাই সৌদি আরবে অবস্থানরত। অর্থাৎ, এবার সৌদি আরবের বাইরে থেকে গিয়ে কাউকে হজ করতে দেয়া হচ্ছে না। তবে যারা সুযোগ পেয়েছেন তাদের মধ্যে দুই তৃতীয়াংশই দেশটিতে অবস্থানরত প্রবাসী।

এ বছর হজে অংশগ্রহণের সুযোগ সীমিত রাখা হলেও এর অন্যতম মূল আনুষ্ঠানিকতা সম্প্রচারের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সৌদি কর্তৃপক্ষ। এছাড়া আরাফাত ময়দানে সমবেত মুসল্লিদের উদ্দেশে দেওয়া খুতবা সম্প্রচারের সময় বাংলাসহ মোট ১০টি ভাষায় তা অনুবাদের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।