স্ত্রীকে নিয়ে যে প্রশ্ন করায় সাংবাদিককে হুমকি দিলেন ব্রাজিল প্রেসিডেন্ট

ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জাইর বোলসোনারো প্রতি রবিবার সাংবাদিক সম্মেলন করেন। যথারীতি এই রবিবারও তিনি ব্রাসিলিয়ার মেট্রোপলিটানো ক্যাথেড্রালে সংবাদ সম্মেলনে হাজির হন।

সেখানে দুর্নীতির সঙ্গে তার স্ত্রীর জড়িত থাকার বিষয়ে প্রশ্ন করেন এক সাংবাদিক। এতে মেজাজ হারান বোলসোনারো। তিনি সাংবাদিকের মুখে একের পর এক ঘুষি মারার হুমকি দেন। এরপর অবশ্য আর কোনও প্রশ্নের উত্তর কিংবা মন্তব্য না করেই তিনি সংবাদ সম্মেলন কক্ষ ত্যাগ করেন।

প্রশ্নকারী  ওই সাংবাদিককে উদ্দেশ্য করে বোলসোনারো বলেন, ‘আমি একের পর এক ঘুষি দিয়ে আপনার মুখ বাঁকা করে দিতে চাই।’
এমনটি বলার পর উপস্থিত সাংবাদিকরা তার মন্তব্যের বিরোধিতা করেন। সংবাদ সম্মেলন বর্জনের হুমকি দেন। প্রেসিডেন্টের মন্তব্যের সমালোচনা শুরু করেন। এমন সময় বোলসোনারো আর কিছু না বলে সংবাদ সম্মেলন কক্ষ ত্যাগ করেন।

এই ঘটনার পর ব্রাজিলের বিভিন্ন পত্রিকা প্রেসিডেন্টের কাণ্ডজ্ঞান ও দায়বদ্ধতা নিয়েও প্রশ্ন তোলে। সমালোচনা করে বোলসোনারোর। একজন জনগণের প্রতিনিধি হিসেবে তিনি সাংবাদিকদের সঙ্গে এমন আচরণ করতে পারেন না।

সম্প্রতি একটি ম্যাগাজিনে প্রকাশিত হয়েছে যে অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ কর্মকর্তা ফ্যাব্রিসিও কুইরোজের (যিনি বোলসোনারোর বন্ধু) বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে বোলাসোনারোর ছেলের সাবেক এক উপদেষ্টার বিরুদ্ধেও। দুর্নীতির এসব বিষয়ে বর্তমানে তদন্তের মধ্যে আছেন সাবেক ওই পুলিশ কর্মকর্তা ও বোলসোনারোর ছেলে (বর্তমানে সিনেটর)।

তদন্তে দেখা গেছে, এই দুর্নীতির সঙ্গে বোলসোনারোর স্ত্রীর মিশেল বোলসোনারোও জড়িত আছেন। ২০১১ থেকে ২০১৬ সালের মধ্যে মিশেল বোলসোনারোর ব্যাংক হিসাবে মোটা অংকের অর্থ পাঠিয়েছেন সাবেক ওই পুলিশ কর্মকর্তা।ওই প্রতিবেদক প্রেসিডেন্টের কাছে এসব বিষয় জানতে চাইলেই ক্ষীপ্ত হন তিনি।

সূত্র: ব্যাংকক পোস্ট, দ্য হিন্দু, সিএনএ, মালয়েশিয়ান ইনসাইট