স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর না দেওয়ায়, গৃহবধূকে মারধর ও এসিড নিক্ষেপ

নাটোরের গুরুদাসপুর বাজার সংলগ্ন শফিকুল ইসলামের বাড়িতে আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে হামলা চালিয়ে তার স্ত্রী পান্নাকে (৩২) বেধড়ক মারধর করে এসিড নিক্ষেপ করেছে সন্ত্রাসীরা। আহত গৃহবধুর দুই হাতসহ শরীরের বিভিন্নস্থান এসিডে পুড়ে গেছে। তিনি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছেন।

আহত গৃহবধু পান্না (৩২) বলেন, নন জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর না দেওয়ায় আমাকে মারপিট করে শরীরে এসিড নিক্ষেপ করে মিলন ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী। শুধু তাই নয়, বাড়িঘর ভাংচুর করে নগদ টাকা ও ৫ ভরি গহনা লুট করে নিয়ে গেছে মিলন বাহিনী।

মিলন (৩৫) পৌর সদরের চাঁচকৈড় বাজারপাড়ার কাঠ ব্যবসায়ী আব্দুস সামাদের ছেলে। পাশের বাড়ির মনিরা খাতুন বলেন, বাড়ির পূর্ব দিক থেকে প্রাচীর টপকে এসে মুহুর্তের মধ্যে সন্ত্রাসীরা হামলা চালায়। এসময় শফিকুলের ছেলে সিজান (১০) ও মেয়ে জুম্মা (২) আমার বাসার উঠানে খেলছিল।

আহত পান্নার স্বামী শফিকুল ইসলাম নাটোর প্রাণ কম্পানীতে চাকরি করেন। তিনি মুঠোফোনে বলেন, সম্প্রতি আমার স্ত্রীর মাধ্যমে স্থানীয় এনজিও জাগরনী চক্র থেকে ৯৯ হাজার টাকা লোন উত্তোলন করি। সে সময় মিলন তাকে সহযোগিতা করেন। এরপর থেকে মিলন বিভিন্নভাবে আমাদের কাছ থেকে টাকা পাবে বলে মিথ্যা প্রচার চালায়।

তাকে টাকা না দেওয়ায় আমাদের ওপর নানাভাবে ব্লাকমেইলিং করে আসছিল মিলন। গুরুদাসপুর থানার ওসি মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, এ ব্যাপারে কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি। তারপরেও ঘটনার তদন্ত করে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।