সৌদির গোপন পরমাণু কর্মসূচিতে আইএইএ’র নীরবতা: ইরানের সমালোচনা

সৌদি আরব গোপনে যে পরমাণু কর্মসূচি পরিচালনা করছে সে ব্যাপারে আন্তর্জাতিক আণবিক শক্তি সংস্থা বা আইএইএ’র নীরবতার তীব্র সমালোচনা করেছে ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরান।

আইএইএ-তে নিযুক্ত ইরানের স্থায়ী প্রতিনিধি ইসমাইল বাঘায়ি হামানেহ সংস্থার দ্বিমুখী আচরণের কঠোর সমালোচনা করে বলেন, এতে আন্তর্জাতিক এ প্রতিষ্ঠানটির বিশ্বাসযোগ্যতা ও নিরপেক্ষতা প্রশ্নের মুখে পড়বে।

গতকাল (শুক্রবার) জাতিসংঘের নিরস্ত্রীকরণ বিষয়ক এক অনুষ্ঠানে বক্তৃতা দেয়ার সময় ইরানের প্রতিনিধি বলেন, “পশ্চিম এশিয়ায় পরমাণু অস্ত্রের বিপদ নিয়ে উদ্বিগ্ন হওয়ার যথেষ্ট কারণ আছে।

ইহুদিবাদী ইসরাইল আন্তর্জাতিক সমস্ত আইন-কানুন উপেক্ষা করে পরমাণু অস্ত্র কর্মসূচি পরিচালনা করছে; এর সঙ্গে সৌদি আরবের পরমাণু কর্মসূচি গোলযোগপূর্ণ এ অঞ্চলের জন্য জটিলতা আরো বাড়িয়ে তুলেছে।”

বাঘায়ি বলেন, আমেরিকার সহযোগিতা নিয়ে সৌদি আরব নানা ধরনের অন্যায় ও বর্বরতা চালিয়ে যাচ্ছে যা সবার জানা। তবে পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ চুক্তি বা এনপিটির সদস্য হিসেবে ইরান শান্তিপূর্ণ উদ্দেশ্যে পরিচালিত সৌদি আরবের পরমাণু জ্বালানি কর্মসূচির অধিকারকে সম্পূর্ণভাবে সমর্থন করে। কিন্তু রিয়াদ এনপিটির প্রতিশ্রতি রক্ষা করতে মারাত্মকভাবে ব্যর্থ হয়েছে।