সীতাকুণ্ডে ট্রাকবোঝাই গরু লুট করতে চালককে গুলি করে হত্যা

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে কুরবানির গরুবাহী ট্রাক লুটের উদ্দেশ্যে হামলা চালিয়েছে একদল ডাকাত। এ সময় ডাকাতদের দেখে গাড়ি নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করায় চালককে গুলি করে হত্যা করেছেন তারা।

শুক্রবার ভোরে উপজেলার ফৌজদারহাট বায়েজিদ লিংক রোডে এ ঘটনা ঘটে। নিহত ট্রাকচালকের নাম মো.আবদুর রহিম ওরফে আবদুল (৫৫)। তিনি যশোরের চৌগাছি থানার চন্দ্রা গ্রামের বশির মিয়ার ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, শুক্রবার ভোর ৪টার দিকে কুরবানির পশুবাহী একটি ট্রাক ফৌজদারহাট বায়েজিদ সংযোগ সড়ক হয়ে চট্টগ্রাম নগরীতে যাচ্ছিল। ট্রাকটি সীতাকুণ্ডের বায়োজিদ লিংক রোড় এলাকায় পৌঁছলে আগে থেকে ওঁৎ পেতে থাকা ডাকাত দল গাড়িটিকে থামানোর চেষ্টা করে। কিন্তু চালক ট্রাকটি না থামিয়ে দ্রুত পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে ডাকাতরা তাকে গুলি করে। এতে ঘটনাস্থলেই চালকের মৃত্যু হয়।

ট্রাকচালকের সহকারী মো. ইব্রাহিম বলেন, মাগুরা সদর উপজেলার গাংনালিয়া থেকে বুধবার ১২টি গরু নিয়ে চট্টগ্রামের বিবির হাট গরুর বাজারের উদ্দেশে রওনা দেন গরুর মালিক মিলন মোল্লা। বৃহস্পতিবার রাতে নোয়াখালী পৌঁছানোর পর অসুস্থ হয়ে একটি গরু মারা যায়।

এ সময় মিলন মোল্লা নোয়াখালী থেকে চট্টগ্রামের বিবির হাট গরুর বাজারের উদ্দেশে আমাদের ট্রাকে রাখাল দিয়ে চারটি গরু তুলে দেয়। শুক্রবার ভোররাতে ট্রাকটি ফৌজদারহাট-বায়োজিদ বোস্তামী সংযোগ সড়ক এলাকা অতিক্রমকালে ডাকাত দল আমাদের গাড়ির গতিরোধ করেন। এ সময় ডাকাত দলের গুলিতে ঘটনাস্থলেই চালকের মৃত্যু হয়।

সীতাকুণ্ড থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সুমন বণিক বলেন, জরুরি সেবা নম্বরের ফোন পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে নিহত চালকের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য নিহতের লাশ চমেক হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় কোনো গরু লুট হয়নি। তবে চালক নিহত হওয়ার কারণে হত্যা মামলা হবে।