সিরিয়ায় মার্কিন ঘাঁটিতে রকেটের আঘাত

সিরিয়ার পূর্বাঞ্চলীয় দেইর আয-যোর প্রদেশের একটি তেলক্ষেত্রের কাছে মার্কিন ঘাঁটিতে কয়েকটি রকেট আঘাত হেনেছে।

গতকাল (মঙ্গলবার) শেষ বেলায় সিরিয়ার রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থ জানিয়েছে, দেইর আয-যোর প্রদেশের কনোকো তেলক্ষেত্রের কাছে মার্কিন ঘাঁটিতে রকেটগুলো আঘাত হানে। মার্কিন সামরিক বাহিনী এবং কুর্দি গেরিলারা তেলক্ষেত্রটি নিয়ন্ত্রণ করে থাকে।

রকেট হামলায় সম্ভাব্য ক্ষয়ক্ষতি পরিষ্কার কোনো তথ্য পাওয়া যায় নি। সিরিয়ার উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় কামিশলি শহরের কাছে একটি চেক পয়েন্টে মার্কিন হেলিকপ্টার থেকে হামলা চালিয়ে একজন সিরিয় সেনা হত্যা এবং দুজনকে আহত করার একদিন পর মার্কিন ঘাঁটিতে রকেট হামলার ঘটনা ঘটলো।

গত বছরের অক্টোবর মাস থেকে আমেরিকা সিরিয়ার উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় এলাকার তেলক্ষেত্রগুলোতে নতুন করে সেনা মোতায়েন করেছে। এসব তেলক্ষেত্র নিয়ন্ত্রণ করে থাকে মূলত কুর্দি ভাড়াটে গেরিলারা। মার্কিন সেনারা কুর্দি গেরিলাদেরকে বরাবর সমর্থন দিয়ে আসছে।

২০১১ সালে সিরিয়ায় বিদেশি মদদপুষ্ট সন্ত্রাসীদের তাণ্ডব শুরুর পর থেকে আমেরিকা আর্ন্তজাতিক জোটের নামের সিরিয়ায় নিজেদের সেনা মোতায়েন করে রেখেছে।

তবে সিরিয়ার সরকার সবসময় বলে আসছে- দামেস্কের অনুমতি ছাড়া এভাবে সেনা মোতায়েন সম্পূর্ণভাবে বেআইনি এবং অবৈধ। মার্কিন সেনাদেরকে দখলদার হিসেবে বিবেচনা করে থাকে সিরিয়া সরকার।