সম্পর্কে যাতে ‘গ্যাপ’ না থাকে সে বিষয়ে শ্রিংলার সঙ্গে আলোচনা : পররাষ্ট্র সচিব

বাংলাদেশে সফরে আসা ভারতের পররাষ্ট্র সচিব হর্ষ বর্ধন শ্রিংলার সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কোন্নয়ন, করোনা ভ্যাকসিন ও রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে আলোচনা হতে পারে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন।

তিনি বলেছেন, ‘দুই দেশের সম্পর্ক অনেক গভীর। এ সম্পর্কের যত্ন নেওয়া লাগে, যাতে ভুল বোঝাবুঝি না হয়। এ ছাড়া সম্প্রতি কিছু কাল্পনিক নিউজ (দুই দেশের সম্পর্ক নিয়ে) হয়েছে। সেগুলো নিয়ে কথা হবে, যাতে সম্পর্কে কোনো ফাঁকফোকর (গ্যাপ) না থাকে।’

মঙ্গলবার দুপুরে মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে সচিব এসব কথা বলেন।
পররাষ্ট্র সচিব বলেন, ‘দুদেশের সম্পর্ক নিয়ে উভয়পক্ষের মধ্যে প্রচুর আলোচনা (ইন্টারেকশন) হয়। করোনাভাইরাসের কারণে সে হিসেবে এ বছর কমই হয়েছে। সব সময় আলোচনায় সম্পর্কোন্নয়নের বিষয়টি থাকে। এবার কোভিড নিয়ে সহযোগিতার বিষয়টি থাকছে।’

তিনি বলেন, ‘তাদের দেশে এখন করোনার ভ্যাকসিন তৈরির চেষ্টা চলছে। ভ্যাকসিন নিয়ে আমরা কে কোন পর্যায়ে আছি, সেটা নিয়ে আলোচনা হবে।’

বাংলাদেশ সফর শেষে সরাসরি মিয়ানমারে যাবেন ভারতের পররাষ্ট্র সচিব। তাই শ্রিংলার সঙ্গে আলোচনায় রোহিঙ্গা ইস্যু স্থান পাবে কি না জানতে চাইলে মাসুদ বিন মোমেন বলেন, ‘দেখি, হতে পারে।

তারা তো এ বিষয়ে আমাদের সহযোগিতার কথা বলে আসছে। তারা মিয়ানমার কর্তৃপক্ষকে সাহায্য করছে, যাতে রোহিঙ্গা পুনর্বাসন হতে পারে। এ বিষয়ে আপডেট জানতে চাইতে পারি।’

মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে এক অনির্ধারিত সফরে ঢাকা পৌঁছান ভারতের পররাষ্ট্র সচিব হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা।