শ্রীলঙ্কায় প্রবল বর্ষণ, বন্যা ও ভূমিধসে অন্তত ১৭ জনের মৃত্যু

শ্রীলঙ্কায় প্রবল বর্ষণের ফলে সৃষ্ট বন্যা ও ভূমিধসে অন্তত ১৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া হাজার হাজার মানুষকে তাদের বাসস্থান থেকে অন্যত্র সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। দেশটির কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানানো হয়েছে। কয়েকদিনের টানা বৃষ্টিতে দ্বীপরাষ্ট্রটির দক্ষিণ ও পশ্চিমাঞ্চলের নদীগুলোতে স্বাভাবিক মাত্রার চেয়ে বেশি পানি প্রবাহিত হতে শুরু করে। এর ফলে নিম্নাঞ্চলের এলাকাগুলো পানিতে তলিয়ে যায়। হাজার হাজার মানুষ ত্রাণ কেন্দ্রগুলোতে আশ্রয় নিয়েছে।

দেশটির জাতীয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কেন্দ্রের সহকারী পরিচালক প্রদীপ কোডিপ্পিলি বলেছেন, ‘পানির স্তর স্বাভাবিক মাত্রায় নামতে শুরু করেছে কিন্তু এখনও ১০টি জেলায় ভূমিধসের ঝুঁকি রয়েছে।’ তিনি বলেন, এই বন্যায় ২ লাখ ৭০ হাজারেরও বেশি মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এবং প্রায় এক লাখ ভবনে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। শ্রীলঙ্কার আবহাওয়া বিভাগের মহাপরিচালক আথুলা কারুনানায়াকে বলেন, ‘আমরা আশা করছি এখন থেকে বৃষ্টিপাত কমতে শুরু করবে তবে কয়েকটি অঞ্চলে মাঝে মাঝে বৃষ্টিপাত হবে।

করোনাভাইরাসের কারণে দেশটির সরকার যে বিধিনিষেধ আরোপ করেছিল, তা তুলে নেওয়ার কিছু আগেই এই প্রাকৃতিক দুর্যোগ আঘাত করল। করোনার তৃতীয় ঢেউ রুখতে মাসব্যাপী যে লকডাউন দেওয়া হয়েছিল তা আগামী ১৪ জুন তুলে নেওয়ার কথা রয়েছে।

সূত্র: রয়টার্স।