শোক দিবসের অনুষ্ঠান নিয়ে আ’লীগের ২ পক্ষের উত্তেজনা

জাতীয় শোক দিবসের অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে নেত্রকোনার মোহনগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের দুটি পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

শুক্রবার রাত থেকে এই উত্তেজনার সৃষ্টি হয়।

জানা যায়, উপজেলা আওয়ামী সভাপতি ও পৌর মেয়র অ্যাড. লতিফুর রহমান রতনের সঙ্গে গত কয়েক মাস ধরে বিরোধ চলে আসছিল উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শহীদ ইকবালের।

শনিবার উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শহীদ ইকবাল জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে আলোচনা সভার আয়োজন করেন। অতীতের বিরোধের জের ধরে এই সভায় উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতিকে আসতে দেয়া হবে না গুঞ্জন শোনা যায়।

এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে মোহনগঞ্জ আওয়ামী লীগ নেতা কর্মীদের মধ্যে উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। শুক্রবার সন্ধ্যা থেকে উভয় গ্রুপ মারমুখী অবস্থান নেয়।

শহীদ ইকবাল জানান, সংগঠন বিরোধী কাজের জন্য কয়েকমাস আগে দলীয় পদ থেকে সভাপতিকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

এদিকে উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি এডভোকেট লতিফুর রহমান রতন বলেন, সভা নিয়ে উত্তেজনা বিরাজ করছে। দলের নেতা কর্মীদের নিয়ে শোক দিবসের অনুষ্ঠানে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হবে।

এ প্রসঙ্গে জেলা পুলিশ সুপার আকবর আলী মুনসী বলেন, তিনি মোহনগঞ্জে গিয়েছিলেন। উভয় গ্রুপের সাথে কথা বলেছেন এবং শান্তিপূর্ণভাবে সমাবেশ করার জন্য আলোচনা হয়েছে।

সূত্র: যুগান্তর