লেজার দিয়ে ড্রোন ও রকেট ভূপাতিত করবে ইসরায়েল

ড্রোন ও রকেট হামলা ঠেকাতে লেজার অস্ত্র তৈরি করছে ইসরায়েল। ২০২৫ সালের মধ্যে অস্ত্রটি ব্যবহার উপযোগী হবে। ইনসাইডারের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, উচ্চ শক্তিশালী লেজার অস্ত্র পদ্ধতিটি উন্নত সেন্সর ও ট্র্যাকিং সিস্টেমসহ একটি বিমানের ওপর ইনস্টল করা হয়েছিল এবং বিভিন্ন পরিসীমা ও উচ্চতায় একাধিক ড্রোনের ওপর ব্যবহার করা হয়েছিল।

ইসরায়েলি প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় ও স্থানীয় প্রতিরক্ষা সংস্থা এলবিট সিস্টেমস দ্বারা গত সপ্তাহে পরিচালিত পরীক্ষার সময় লেজার ইনস্টল করা বিমানটি ১০০ ভাগ উড়ন্ত বস্তু চলাচলে বাধা ও ধ্বংস করে দিয়েছিল।

ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় একটি টুইটে জানিয়েছে, বিশ্বের মধ্যে এই জাতীয় ক্ষমতা প্রদর্শনে ইসরায়েলি প্রথম সক্ষম হয়েছে। পরীক্ষা চলাচলে অস্ত্রটি এক কিলোমিটার রেঞ্জের ভেতরে থাকা ড্রোনকে বিধ্বস্ত করে দিতে পারে।

ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের গবেষণা ও উন্নয়ন বিভাগের ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ইয়ানিভ রটেম জানিয়েছেন, ২০ কিলোমিটার রেঞ্জের ১০০ কিলোওয়াট ক্ষমতার পরীক্ষামূলক এই অস্ত্র আগামী তিন থেকে চার বছরের মধ্যে দেখা যাবে।