লক্ষ্মীপুরে গৃহবধূকে দলবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ, দুই যুবক গ্রেপ্তার

লক্ষ্মীপুরে ঘরে ঢুকে এক গৃহবধূকে (২৪) দলবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আজ বুধবার (১ সেপ্টেম্বর) দুপুরে আদালতের মাধ্যমে তাদেরকে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়। একই সময় ভুক্তভোগী নারীকে সদর হাসপাতালে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য পাঠিয়েছে পুলিশ।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন মোরশেদ আলম সোহেল ও মো. সোহেল। তাদেরকে সদর উপজেলার হাজিরপাড়া ইউনিয়নের উত্তর চন্দ্রপুর গ্রাম ও হরিহর চক্র গ্রাম থেকে মঙ্গলবার (৩১ আগস্ট) রাতে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। অন্য আসামিরা হলেন মো. বাচ্চু ও সোহেল আহম্মদ। আসামিরা উত্তর চন্দ্রপুর ও হরিহর চক্র গ্রামের বাসিন্দা। মঙ্গলবার রাতে ভুক্তভোগী নারী বাদী হয়ে ৪ জনের বিরুদ্ধে চন্দ্রগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করেন।

এজাহার ও পুলিশ সূত্র জানায়, সোমবার (৩০ আগস্ট) দিবাগত মধ্যরাতে উত্তর চন্দ্রপুর গ্রামে ঘরে ঢুকে জোরপূর্বক মালয়েশিয়া প্রবাসীর স্ত্রীকে অভিযুক্ত চারজন পালাক্রমে ধর্ষণ করে। ধর্ষণ শেষে তাকে মারধর করে গলার চেইন, কানের দুল ও দুইটি স্বর্ণের আংটি নিয়ে যায় তারা। এ সময় গৃহবধূ বসতঘরে একাই ছিলেন। তার আট বছরের একটি কন্যা সন্তান তখন তার নানার বাড়িতে ছিল।

চন্দ্রগঞ্জ থানার ওসি এ কে ফজলুল হক বলেন, দলবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় ২ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আদালত তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন। অপর দুই আসামিকে গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।