রায়হানকে দেশে ফেরত পাঠাবে মালয়েশিয়া সরকার

অভিবাসী শ্রমিক ইস্যুতে আল জাজিরায় স্বাক্ষাতকার দিয়ে মালয়েশিয়া সরকারের তোপের মুখে গ্রেফতার হওয়া বাংলাদেশী রায়হান কবির কে শ্রীঘ্রই তার নিজ দেশে ফেরত পাঠানো হবে বলে দেশটির সরকারের পক্ষ থেকে নিশ্চিত করা হয়েছে।

বুধবার (৫ আগষ্ট) মালয়েশিয়া ইমিগ্রেশন মহাপরিচালক দাতোক সেরী খাইরুল দাযামি দাউদ ইমিগ্রেশন সদর দফতরে এক সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, বর্তমানে রয়েল পুলিশ রায়হানের মামলা টি তদন্ত করছেন এবং ১৪ দিনের রিমান্ডে রয়েছেন।

এই প্রক্রিয়া শেষ হলে এবং পুলিশের তদন্তের রিপোর্ট এ্যাটনি জেনারেল এর কাছে জমা দেওয়া পর আদালতের সিদ্ধান্ত মতে তাকে তার নিজ দেশ বাংলাদেশে ফেরত পাঠানো হবে।

ইমিগ্রেশন বিভাগের মহাপরিচালক এসময় আরও বলেন, রায়হান কবিরের ভিসা ও ওয়ার্ক পারমিট বাতিল করা হয়েছে এবং তাকে কালো তালিকা ভুক্ত করা হবে।

রায়হান কবির কে ঠিক কত তারিখ বাংলাদেশে ফেরত পাঠানো হবে সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত সাংবাদিকরা এ প্রশ্ন করলে ইমিগ্রেশন মহাপরিচালক এর নির্দিষ্ট তারিখ জানাতে পারেন নি। তবে তিনি বলেছেন ৩১ আগষ্টের পর ঢাকা-কুয়ালালামপুর ফ্লাইট পরিচালনা করা হতে পারে।

উল্লেখ্য, মালয়েশিয়ায় অভিবাসী শ্রমিকরা লকডাউনে বৈষম্যের শিকার হচ্ছে বলে আন্তর্জাতিক আল জাজিরা টেলিভিশন চ্যানেলে একটি ডকুমেন্টারি তে স্বাক্ষাতকার দিয়েছেন। যা গত ৩ জুলাই প্রচারিত হওয়ার পর দেশটিতে ব্যাপক আলোচনা সমালোচনার মুখে পড়েন রায়হান কবির।

সরকারের পক্ষ থেকে এই অভিযোগের তীব্র সমালোচনা করে তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি করে। তদন্তের জন্য তাকে ধরিয়ে দিতে জনগণের সহযোগিতা চাওয়া হয়। পরে ২৪ জুলাই কুয়ালালামপুর একটি কন্ডোনিয়াম থেকে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।