রামেক হাসপাতালের করোনা ইউনিটে আরও ১৩ জনের মৃত্যু

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের করোনা ইউনিটে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। রবিবার সকাল থেকে সোমবার সকাল পর্যন্ত চিকিৎসাধীন অবস্থায় তারা মারা যান।

এদের মধ্যে ছয়জন পজিটিভ, ছয়জন উপসর্গে ও একজন নেগেটিভ হওয়ার পর মারা যান। রামেক হাসপাতালের পরিচালক বিগ্রেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এ নিয়ে চলতি মাসের ২১ দিনে (১ থেকে ২১ জুন) এ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে মারা গেছেন ২১৬ জন। এর মধ্যে ১০৫ জনই মারা গেছেন করোনা শনাক্তের পর। বাকিরা উপসর্গ নিয়ে মারা যান।

রামেক পরিচালক জানান, নতুন মৃতদের তিনজন রাজশাহীর (পজিটিভ ২, নেগেটিভ ১), ছয়জন চাঁপাইনবাবগঞ্জের (পজিটিভ ৩, উপসর্গে ৩) একজন নাটোরের (পজিটিভ)। মৃতদের চারজন পুরুষ ও নয়জন নারী। এদের মধ্যে ৩১ থেকে ৪০ বছর বয়সী দুইজন, ৪১ থেকে ৫০ বছর বয়সী দুইজন, ৫১ থেকে ৬০ বছর বয়সী তিনজন ও ৬১ বছরের বেশি বয়সী ছয়জন রয়েছেন।

তিনি আরও জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় রামেক হাসপাতালে নতুন ভর্তি হয়েছেন ৬২ জন। এর মধ্যে রাজশাহীর ৪৫, চাঁপাইনবাবগঞ্জের ৯, নাটোরের ৩, নওগাঁ ৩, জয়পুরহাট ১ ও পাবনার ১ জন। একই সময় সুস্থ হয়েছে হাসপাতাল ছেড়েছেন ৩৪ জন।

তিনি বলেন, ‘আজ সোমবার সকাল পর্যন্ত এ হাসপাতালের ৩০৯ বেডের বিপরীতে করোনা ও উপসর্গের রোগী ভর্তি রয়েছেন ৪০২ জন। অতিরিক্ত বেডের ব্যবস্থা করে অতিরিক্ত রোগীদের চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। এদের মধ্যে রাজশাহীর ২৬৪ জন, চাঁপাইনবাবগঞ্জের ৭০, নাটোরের ৩০, নওগাঁর ২৯, পাবনার ৫, কুষ্টিয়ার ২ ও চুয়াডাঙ্গার ২ জন।