রাজশাহীতে জেএমবির ৩ সদস্য গ্রেফতার, ঈদে ছিল নাশকতার পরিকল্পনা

রাজশাহীতে নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জামায়াতুল মুজাহিদিন বাংলাদেশের (জেএমবি) তিন সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। গতকাল বৃহস্পতিবার (৩০ জুলাই) রাত ২টার দিকে জেলার চারঘাট উপজেলার ডাকরা গ্রামে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

র‌্যাব বলছে, ঈদকে ঘিরে একটি নাশকতার পরিকল্পনা করছিল এই জঙ্গিরা। গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেফতার তিনজন হলেন ডাকরা গ্রামের মৃত জান মোহাম্মদের ছেলে শুকচাঁন আলী (৬০), আবদুস সাত্তারের ছেলে আবদুর রাজ্জাক ওরফে ফেলু (৪৫) এবং মো. নইমুদ্দিনের ছেলে শরীফুল ইসলাম (৪২)।

এদের গ্রেফতারের অভিযানে নেতৃত্ব দেন র‌্যাব-৫ এর সিনিয়র পুলিশ সুপার একেএম এনামুল কবির। তিনি জানান, অভিযানে বিতর্কিত উগ্রবাদী বই, লিফলেট এবং ইয়ানাত সংগ্রহের রশিদ জব্দ করা হয়েছে। এই তিনজন শুকচাঁন আলীর বাড়িতে গোপন বৈঠকে বসেছিল। সেখানেই অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।

র‌্যাবের এই কর্মকর্তা বলেন, ঈদের আগেই, ঈদের দিন অথবা ঈদের পরে অর্থাৎ ঈদকে ঘিরে রাজশাহীতে জেএমবির একটি নাশকতার পরিকল্পনা ছিল। দিনক্ষণ এবং পরিকল্পনা ঠিক করতেই এরা বৈঠকে বসেছিল। জিজ্ঞাসাবাদে তারা বিষয়টি জানিয়েছে। আরও কিছু তথ্য পাওয়া গেছে। সেগুলো যাচাই-বাছাই করা হচ্ছে।

জিজ্ঞাসাবাদ শেষে জেএমবির এই তিন সক্রিয় সদস্যকে চারঘাট থানা পুলিশে সোপর্দ করা হয়। এ থানায় সন্ত্রাসবিরোধী আইনে তাদের বিরুদ্ধে একটি মামলাও করা হয়েছে। পুলিশ আসামিদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠাবে।