রক্তদহ বিলে নৌকাডুবিতে মা ও ছেলের মৃত্যু

বগুড়ার আদমদীঘির ঐতিহাসিক রক্তদহ বিলে মঙ্গলবার দুপুরে ডিঙি নৌকা ডুবে মা ও ছেলের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। তাদের মৃত্যুতে শুধু নিজ পরিবারে নয়, পুরো গ্রামে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

আদমদীঘি থানার ওসি জালাল উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

মৃতরা হলেন আদমদীঘি উপজেলার সান্দিড়া গ্রামের শহীদ হোসেনের স্ত্রী চাঁদনী বেগম (২৯) ও তার শিশুসন্তান মোহাম্মদ শাদ (৭)।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, মঙ্গলবার দুপুরে চাঁদনী বেগম, তার ছেলে শাদসহ পরিবারের পাঁচ সদস্য ঈদের দাওয়াত খেতে উপজেলার করজবাড়ি গ্রামে ভাগ্নির বাড়িতে যাচ্ছিলেন।

স্থানীয় দমদমা গ্রামে শিহাব হোসেন নামে এক কিশোর হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় অটোরিকশা চলাচল বন্ধ আছে। তাই মা ও ছেলেসহ ১১ জন রক্তদহ বিলের সান্দিড়া ঘাট থেকে মাছ ধরার ডিঙি নৌকায় করজবাড়ির দিকে রওনা হন।

নৌকা বিলের মাঝে পৌঁছলে হঠাৎ তলা ফেটে পানি উঠতে থাকে। একপর্যায়ে নৌকা ডুবে যেতে থাকলে মাঝি ও চাঁদনীর ভাগ্নিজামাই পানিতে নেমে তাদের রক্ষার চেষ্টা করেন।

এছাড়া বিলে থাকা একটি নৌকা তাদের রক্ষায় এগিয়ে আসে। ততক্ষণে চাঁদনী ও তার ছেলে শাদ পানিতে ডুবে যান। পরে তাদের উদ্ধার করে স্থানীয় চিকিৎসা কেন্দ্রে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।