রকেট আঘাতের পর পাক-আফগান সীমান্তে উত্তেজনা; সংঘাতের আশঙ্কা

পাকিস্তান থেকে ছোড়া রকেট হামলায় আফগানিস্তানের কান্দাহার প্রদেশের স্পিন বুলডাক এলাকায় বহু বেসামরিক ব্যক্তি হতাহত হওয়ার পর দুই দেশের সীমান্তে ব্যাপক উত্তেজনা দেখা দিয়েছে। আফগান সরকার দাবি করেছে, পাকিস্তানের সেনাবাহিনী ওই রকেট হামলা চালিয়েছে।

আফগানিস্তানের সেনাপ্রধান ইয়াসিন জিয়া বলেছেন, সীমান্তে আফগান বাহিনীকে প্রস্তুত রাখা হয়েছে, পাকিস্তান থেকে হামলা অব্যাহত থাকলে পাল্টা আঘাত করা হবে।

আফগানিস্তানের কান্দাহার প্রদেশের গভর্নরের গণমাধ্যম বিভাগ বলেছে, পাকিস্তানের সামরিক বাহিনী গতকাল (বৃহস্পতিবার) স্পিন বুলডাক এলাকায় রকেট হামলা চালিয়েছে, এর ফলে ১৫ বেসামরিক ব্যক্তি নিহত ও আট জন আহত হয়েছেন। আফগানিস্তানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় রকেট হামলায় ৯ ব্যক্তির মৃত্যুর সত্যতা স্বীকার করেছে।

তারা বলেছে, আরও অন্তত ৫০ জন আহত হয়েছে। আফগানিস্তানের সাবেক প্রেসিডেন্ট হামিদ কারজাই বলেছেন, পাকিস্তান রকেট নিক্ষেপের আন্তর্জাতিক সব আইন ও রীতি-নীতি লঙ্ঘন করেছে। তবে এখন পর্যন্ত পাকিস্তানের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিক বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

আফগানিস্তান ও পাকিস্তানের মধ্যে সীমান্তের ডুরান্ট লাইন নিয়ে বিরোধ রয়েছে। ১৮৯৩ সালে ব্রিটিশ ঔপনিবেশিক আমলে এই সীমান্ত লাইন নির্ধারিত হয়েছে। আফগান সরকার এই সীমান্ত লাইনকে স্বীকৃতি দেয় না।