যেকোন আলোচনায় ইরানি জাতির অধিকার নিশ্চিত করতে হবে

ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের প্রেসিডেন্ট সাইয়েদ ইব্রাহিম রায়িসি বলেছেন, যেকোন আলোচনায় তার দেশের জনগণের অধিকারকে অবশ্যই নিশ্চিত করতে হবে। গতকাল (সোমবার) ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রনের সঙ্গে টেলিফোন আলাপে ইব্রাহিম রায়িসি একথা বলেন। ফোনালাপে দুই নেতা দ্বিপক্ষীয় স্বার্থ এবং ভিয়েনায় ইরানের পরমাণু ইস্যু নিয়ে আলোচনার বিষয়েও কথা বলেন।

ইব্রাহিম রায়িসি আমেরিকার পক্ষ থেকে পরমাণু সমঝোতা বারবার লঙ্ঘনের কথা উল্লেখ করে বলেন, ইরানের বিরুদ্ধে নতুন নিষেধাজ্ঞা আরোপের মাধ্যমে মার্কিনীরা সুস্পষ্টভাবে প্রতিশ্রুতি লঙ্ঘন করেছে, এমনকি তারা জনকল্যাণমূলক ধারার কথা উল্লেখ করে এসব নিষেধাজ্ঞা বাড়িয়েছে। ফোনালাপে তিনি পরমাণু সমঝোতা পরিপূর্ণভাবে বাস্তবায়ন করার ব্যাপারে ইউরোপীয় দেশগুলোর সদিচ্ছার অভাবের কথাও তুলে ধরেন।

ইব্রাহিম রায়িসি জোর দিয়ে বলেন, পরমাণু সমঝোতা অনুসারে আমেরিকা এবং ইউরোপের দেশগুলোকে তাদের দায়িত্ব পরিপূর্ণভাবে পালন করতে হবে।

ফরাসি প্রেসিডেন্টের সঙ্গে ফোনালাপে মধ্যপ্রাচ্যের নিরাপত্তা ইস্যুতেও কথা বলেন সাইয়্যেদ ইবরাহিম রায়িসি। তিনি বলেন, পারস্য উপসাগরের নিরাপত্তা রক্ষার ব্যাপারে ইরান খুবই আন্তরিক এবং এ অঞ্চলের নিরাপত্তা বিনষ্ট করার যেকোনো প্রচেষ্টাকে মোকাবেলা করবে তেহরান।

ফোনালাপে ইমানুয়েল ম্যাক্রন ইরানি প্রেসিডেন্টকে অভিনন্দন জানান। এ সময় তিনি তার সফলতাও কামনা করেন। মধ্যপ্রাচ্যে নিরাপত্তা রক্ষার ক্ষেত্রে ইরান এবং প্যারিসের মধ্যে সহযোগিতা প্রতিষ্ঠার কথা বলেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট।

পরমাণু সমঝোতা থেকে আমেরিকার বের হয়ে যাওয়ার কথা উল্লেখ করে প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রন বলেন, তার দেশ এই সমঝোতা রক্ষার ব্যাপারে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ এবং এ ব্যাপারে একটি সমাধান খুঁজে বের করার চেষ্টা করছে। তিনি বলেন, “আমরা আশা করি এই সমস্যার সমাধান হবে এবং শিগগিরই ভিয়েনায় আলোচনা শুরু হবে। এছাড়া, তেহরানের সঙ্গে সম্পর্ক শক্তিশালী করার জন্য দু’পক্ষের মধ্যে সংলাপ অব্যাহত রাখার আহ্বান জানান।

সূত্রঃ পার্সটুডে