যুক্তরাষ্ট্র যাত্রীবাহী বিমান হয়রানির মাধ্যমে ক্ষমার অযোগ্য অপরাধ করেছে: ইরান

ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের বিচার বিভাগের প্রধান সাইয়্যেদ ইব্রাহিম রায়িসি বলেছেন, যাত্রীবাহী বিমানকে হয়রানির মাধ্যমে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র স্পষ্টভাবে আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন করেছে এবং এটি ক্ষমার অযোগ্য অপরাধ। তিনি আমেরিকার এই পদক্ষেপকে সন্ত্রাসী তৎপরতা হিসেবে আখ্যায়িত করেন।

তিনি আজ (সোমবার) বিচার বিভাগীয় সর্বোচ্চ পরিষদের বৈঠকে এ কথা বলেছেন। ইব্রাহিম রায়িসি অ্যাটর্নি জেনারেলকে এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়ার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, আন্তর্জাতিক আইনি প্রতিষ্ঠানগুলোতে এই অপরাধের বিষয়টি তুলে ধরে এর প্রতিকার নিশ্চিত করতে হবে।

রায়িসি আরও বলেন, আন্তর্জাতিক আইনি সংস্থা ও প্রতিষ্ঠানগুলোকে এ ধরণের সন্ত্রাসী তৎপরতার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে। এর আগে ইরানের জাতীয় বিমান সংস্থা আনুষ্ঠানিকভাবে আন্তর্জাতিক বেসামরিক বিমান চলাচল সংস্থার কাছে অভিযোগ দায়ের করেছে। সংস্থাটি অবিলম্বে তদন্ত সাপেক্ষে পদক্ষেপ গ্রহণের আহ্বান জানিয়েছে।

গত বৃহস্পতিবার তেহরান থেকে ইরানের ‘মাহান’ এয়ারলাইন্সের একটি বিমান উড্ডয়ন করে সিরিয়া হয়ে লেবাননের রাজধানী বৈরুতে যাওয়ার পথে মার্কিন জঙ্গিবিমানের বাধার মুখে পড়ে। সিরিয়ার আল-তানফ অঞ্চলে মার্কিন জঙ্গিবিমান ইরানি যাত্রীবাহী বিমানকে হয়রানি করে। যাত্রীবাহী বিমানকে লক্ষ্য করে বিপজ্জনক তৎপরতা চালায়।

এরপর যাত্রীবাহী বিমান তার অবস্থান পরিবর্তন করতে বাধ্য হয়, বিমানের ভেতরে সৃষ্টি হয় ভয়ানক পরিস্থিতি। এর ফলে অনেক যাত্রীই আহত হয়।