ভয়ঙ্কর নৌ মহড়া চালিয়ে যুক্তরাষ্ট্রকে হুঁশিয়ারি দিল চীন

যুক্তরাষ্ট্রকে হুঁশিয়ারি দিয়ে নিজেদের উত্তর-পূর্ব ও পূর্ব উপকূলে ভয়ঙ্কর নৌ মহড়া শুরু করেছে এশিয়ার পরাশক্তি চীন।

মার্কিন প্রশাসনের সঙ্গে বেইজিংয়ের সামরিক ও রাজনৈতিক উত্তেজনা যখন তুঙ্গে তখনই মহড়াটি শুরু করল দেশটি। চীনা বাহিনীর এ মহড়াকে আমেরিকার জন্য শক্তি প্রদর্শন বলেই ব্যাপকভাবে মনে করছে জিনপিং প্রশাসন।

চীনের সমুদ্র নিরাপত্তা প্রশাসন জানিয়েছে, সোমবার (৭ সেপ্টেম্বর) দেশের নৌবাহিনী উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় বহাই সমুদ্রের সিনহুয়াংদো বন্দরের কাছে প্রথম দফা নৌ মহড়া শুরু করেছে।

পীত সাগরের দক্ষিণাংশে মঙ্গলবার (৮ সেপ্টেম্বর) ও পরদিন বুধবার দ্বিতীয় দফা মহড়া চলবে। ভয়ঙ্কর এ মহড়ায় তাজা গুলির ব্যবহার করা হবে। এ জন্য ওই এলাকায় সবধরনের জাহাজ চলাচল নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

বেইজিং চার স্তরের আলাদা সামরিক মহড়ার পরিকল্পনা ঘোষণা করেছে যা বহাই সাগর থেকে শুরু করে পূর্ব চীন সাগর ও পীত সাগর পর্যন্ত বিস্তৃত হবে। এছাড়া যে দক্ষিণ চীন সাগর নিয়ে আমেরিকার সঙ্গে চীনের চরম দ্বন্দ্ব সেখানেও জুলাই মাসের শেষ দিকে মহড়া চলেছে।

মূলত এরপর থেকে এখন পর্যন্ত পূর্ব ও দক্ষিণ চীন সাগরে অন্তত ১০ রাউন্ড মহড়া চালিয়েছে বেইজিং। যদিও চীনের সামরিক পর্যবেক্ষকরা এসব মহড়াকে ‘রুটিন মহড়া’ বলে মন্তব্য করেছেন।