ভোরে মায়ের মৃত্যু, সকালে জমির বিরোধে ছেলেসহ দুজন নিহত

শেরপুর জেলার নালিতাবাড়ী উপজেলার রাজনগর ইউনিয়নের পশ্চিম বনগাও এলাকায় জমি নিয়ে বিরোধের জেরে মারামারিতে দুইজন নিহত হয়েছেন। তাদের একজন ঘটনাস্থলের পার্শ্ববর্তী ঝিনাইগাতী উপজেলার গৌরিপুর ইউনিয়ন পরিষদ মেম্বার জয়নাল আবেদিন (৫২)।

জয়নাল আবেদিন স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা। অপরজন নালিতাবাড়ী ইউনিয়নের রাজনগর এলাকার বনগাওয়ের আব্দুল কাদেরের ছেলে রিয়াজুল (৫০)।

আজ বুধবার সকালে দুজনকেই গুরুতর আহত অবস্থায় ময়মনসিংহ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় এক ঘণ্টার ব্যবধানে দুপুরে দুজনই মারা যান।

এদিকে আজ ফজরের নামাজের পর নিহত মেম্বারের মা হার্ট অ্যাটাকে মারা যান বলে জানিয়েছেন ঝিনাইগাতী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু বকর ছিদ্দিক। আগে মা পরে সন্তানের (মেম্বার) এমন মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, দুই পক্ষের মধ্যে ৫০ শতক জমি নিয়ে বেশ কিছুদিন বিরোধ চলছিল। বরাবরের মতো ওই জমিতে কদিন আগে রিয়াজুল ধান লাগান। আজ সকালে ওই লাগানো ধানক্ষেত দখল করতে যান মেম্বার জয়নাল ও আরও কজন।

এই অবস্থায় ধানক্ষেতেই দুপক্ষের মধ্যে লাঠি নিয়ে ব্যাপক মারমারি হয়। ঘটনাস্থলে গুরুতর আহত হন মেম্বার ও তার ছোট ভাই জবান আলী (৪৫) এবং রিয়াজুল। জবান আলী ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজে চিকিৎসাধীন। এই মারামারিকে কেন্দ্র করে জমি সংলগ্ন রিয়াজুলের বাসায় ব্যাপক ভাঙচুর করা হয়।

দুপুরে দুজন মারা যাওয়ার খবরে দুপক্ষের মধ্যে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। এ খবর পেয়ে জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বিল্লাল হোসেন ঘটনাস্থলে গিয়ে পুলিশ মোতায়েন করে উত্তেজনা নিয়ন্ত্রণে আনেন। ঘটনাস্থল থেকে বিল্লাল হোসেন জানান, পরিস্থিতি এখন পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে। আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত এলাকায় পুলিশ থাকবে।