ভুটানের সাথে বাংলাদেশের শীঘ্রই অগ্রাধিকারমূলক বাণিজ্য চুক্তি

ভুটানের নবনিযুক্ত রাষ্ট্রদূত রিনচেন কুয়েন্টসিল গতকাল ঢাকায় রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ. কে. আব্দুল মোমেনের সাথে সাক্ষাত করেন।

এ সময় পররাষ্ট্রমন্ত্রী বাংলাদেশ ও ভুটানের মাঝে বাণিজ্য বৃদ্ধিসহ অর্থনৈতিক সহযোগিতা বৃদ্ধির ওপর গুরুত্বারোপ করেন। ভুটানের সাথে বাংলাদেশের শীঘ্রই অগ্রাধিকারমূলক বাণিজ্য চুক্তি স্বাক্ষর হবে বলে উভয় পক্ষ আশাবাদ ব্যক্ত করেন। এটা হবে বাংলাদেশের সাথে কোনো দেশের প্রথম অগ্রাধিকারমূলক বাণিজ্য চুক্তি বলে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী উল্লেখ করেন, ভুটানের প্রধানমন্ত্রী ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী বাংলাদেশে লেখাপড়া করায় আমরা গর্ববোধ করি। বর্তমানে বাংলাদেশের সরকারি মেডিকেল কলেজে গত ৫ বছর ধরে প্রতিবছর ভুটানের ১৫ জন ছাত্র-ছাত্রী লেখাপড়া করার সুযোগ পাচ্ছে। এছাড়াও বেসরকারি মেডিকেল কলেজে ভুটানের অনেক ছাত্র-ছাত্রী লেখাপড়া করছে। ড. মোমেন বলেন, বাংলাদেশের বেসরকারি মেডিকেল কলেজের শিক্ষা ব্যবস্থাও উন্নতমানের।

দু’দেশের মধ্যে সড়ক যোগাযোগ চালুর বিষয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী আশাবাদ ব্যক্ত করেন। বাংলাদেশের তথ্য প্রযুক্তিতে দক্ষ ব্যক্তিরা ভুটানকে সহযোগিতা করতে পারবে বলে তিনি উল্লেখ করেন। করোনা মোকাবিলায় উভয় দেশ একসাথে কাজ করবে বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেন ড. মোমেন।

এ সময় ড. মোমেন বাংলাদেশকে প্রথম স্বীকৃতি প্রদানের জন্য ভুটানের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। ভুটান কর্তৃক বাংলাদেশকে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি প্রদানের ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে দু’দেশের যৌথ অনুষ্ঠানের আয়োজনকেও পররাষ্ট্রমন্ত্রী স্বাগত জানান।