ভিত্তিহীন অভিযোগে ফিলিস্তিনি শিক্ষাবিদকে আটকে রেখেছে সৌদি আরব: অ্যামনেস্টি

আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠন অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল বলেছে, ফিলিস্তিনের প্রখ্যাত শিক্ষাবিদ মুহাম্মদ আল-খুদারি ও তার ছেলেকে ভিত্তিহীন অভিযোগে আটকে রেখেছে সৌদি সরকার।

ব্রিটেনভিত্তিক মানবাধিকার সংস্থাটি এক বিবৃতিতে বলেছে, ৮১ বছর বয়সি ড. মুহাম্মদ আল-খুদারি এবং তার ছেলে ড. হানিকে এক বছরের বেশি সময় ধরে সৌদি সরকার আটকে রেখেছে।

ফিলিস্তিনের এ দুই নাগরিক ভয়াবহভাবে সৌদি আরবে মানবাধিকার লঙ্ঘনের শিকার। তাদেরকে গুম করা হয়েছে এবং জোর করে আটক করা হয়েছে। অ্যামনেস্টি সুস্পষ্ট করে বলেছে, এই দুই ব্যক্তিকে সৌদি সরকার নির্জন কারাবাসে রেখেছে এবং তাদের সাথে পরিবারের লোকজনকে দেখা করতে দেয়া হচ্ছে না।

অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল বলেছে, করোনা ভাইরাসের মহামারির ভেতরে তাদের এইভাবে আটক রাখার ঘটনায় গভীর উদ্বেগ ছড়িয়ে পড়েছে এবং তাদের স্বাস্থ্য নিয়ে শঙ্কা তৈরি হয়েছে।

মোহাম্মদ আল-খুদারি ৩০ বছরের বেশি সময় ধরে সৌদি আরবে বসবাস করছেন এবং ১৯৯০’র দশকে তিনি হামাস ও সৌদি আরবের মধ্যে যোগাযোগ রক্ষা করতেন। তবে তিনি গত ১০ বছর ধরে অনেকটা নিষ্ক্রিয় অবস্থায় ছিলেন।