ভারতে ৮৭ হাজারের বেশি স্বাস্থ্যকর্মী করোনায় আক্রান্ত

ভারতে তাণ্ডব চালাচ্ছে মহামারি করোনা ভাইরাস। আগস্টে প্রতিদিন গড়ে ভারতে করোনা আক্রান্ত হচ্ছে ৬৫ হাজারের বেশি মানুষ। চিন্তা বাড়াচ্ছে স্বাস্থ্যকর্মীদের মধ্যে বাড়তে থাকা করোনার সংক্রমণ। মহামারির শুরু থেকেই সামনের সারিতে দাঁড়িয়ে অদৃশ্য শত্রুর বিরুদ্ধে লড়াই করছেন চিকিৎসক থেকে স্বাস্থ্যকর্মীরা।

এবার করোনার সংক্রমণে আক্রান্ত হচ্ছেন স্বাস্থ্যকর্মীরা এমনকি, ইতিমধ্যে ৫০০শ’র বেশি স্বাস্থ্যকর্মীর করোনায় মৃত্যু হয়েছে বলে ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সূত্রে খবর এসেছে। সবচেয়ে ভয়ংকর পরিস্থিতি দেশের ছয়টি রাজ্য। তারমধ্যে রয়েছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ।

ভারতের সরকারি পরিসংখ্যানের তথ্য অনুযায়ী, গত কয়েক মাসে দেশে ৮৭ হাজারের বেশি স্বাস্থ্যকর্মী করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তাদের প্রায় তিন-চতুর্থাংশই আবার রয়েছেন মাত্র ছয় রাজ্যে। সেগুলো হলো মহারাষ্ট্র, কর্ণাটক, দিল্লি, তামিলনাড়ু, পশ্চিমবঙ্গ ও গুজরাতে। শতাংশের হিসেবে ৭৪%।

কেন্দ্রের রিপোর্ট অনুযায়ী, পুরো দেশে এখনও পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে ৫৭৩ জন স্বাস্থ্যকর্মীর মৃত্যু হয়েছে। স্বাস্থ্যকর্মীদের মোট মৃত্যুর ৮৬ শতাংশ ঘটেছে এই ছয়টি রাজ্যে। এই তালিকের শীর্ষে রয়েছে মহারাষ্ট্র।

গোটা দেশে যত স্বাস্থ্যকর্মী আক্রান্ত, তার ২৮% এই মহারাষ্ট্রে। আবার, করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে যত স্বাস্থ্যকর্মী মারা গিয়েছেন, তার ৫০% এর বেশি ঘটনা ঘটেছে এই রাজ্যেই। মহারাষ্ট্রে মোট ২৯২ জন স্বাস্থ্যকর্মী মারা গিয়েছেন। কর্ণাটক ও তামিলনাড়ুতে মৃত্যু হয়েছে যথাক্রমে ৪৬ ও ৪৯ জন স্বাস্থ্যকর্মীর।

 

কিন্তু গড়মিল রয়েছে স্বাস্থ্যকর্মীদের মৃত্যুর আবেদনেও। ভারতের স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয়ের রিপোর্ট অনুযায়ী, ৫৭৩ জন স্বাস্থ্যকর্মী মারা গিয়েছে। অথচ গত এপ্রিল থেকে এ পর্যন্ত মাত্র ১৪৩টি মৃত্যুর আবেদন জমা পড়েছে।