ভারতে পাচার হওয়া এক শিশু সহ ৭ বাংলাদেশি নারী উদ্ধার

এবার ভারতে আরো সাত বাংলাদেশি নারী ও পাঁচ বছরের এক শিশুকে উদ্ধার করেছে দেশটির পুলিশ। তাদেরও দেহ ব্যবসায় বাধ্য করা হয়েছে বলে জানা গেছে। আজ সোমবার এ তথ্য জানানো হয়েছে। রামনগরমূর্তি পুলিশকে উদ্ধৃত করে বলা হয়েছে, ভুক্তভোগী নারীরা জানিয়েছে তাদের মতো কয়েকশ বাংলাদেশি নারী গত কয়েক মাসে ভারতে পাচার হয়েছেন।

এর আগে বাংলাদেশ থেকে পাচার হওয়া এক তরুণীকে গত মাসের শেষ দিকে নির্মম নির্যাতন করে কয়েক জন বাংলাদেশি যুবক। অভিযুক্তরা নিজেরাই ভিডিও ধারণ করে ফেঁসে যায়। ভিডিওটি তারা আসাম এবং পশ্চিমবঙ্গের বন্ধুদের সঙ্গে শেয়ার করে।

ভিডিও ঘিরে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রতিবাদের ঝড় ওঠে। তখন ভারতের নর্থ ইস্ট পুলিশ এবং বাংলাদেশি প্রশাসন তদন্ত শুরু করে। পরে প্রযুক্তির সহায়তায় তাদের অবস্থান শনাক্ত করা হয়। এরপর বেঙ্গালুরু সিটি পুলিশ তাদের বিশেষ টিমকে দায়িত্ব দেয়। কয়েক ঘণ্টার মধ্যে পুলিশ বুঝতে পারে, অভিযুক্তরা রামনগরমূর্তির আওলাহল্লি এলাকায় অবস্থান করছেন। সেখান থেকে এক তরুণীসহ মোট পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। তখন ভুক্তভোগী অন্য সাত নারীকে উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ বলছে, রামনগরমূর্তি থানার পাশের এলাকায় এসব নারীদের নিয়ে রাখা হয়েছিল। উদ্ধার হওয়া পাঁচ বছরের শিশুটি ভুক্তভোগী এক নারীর মেয়ে। গ্রেপ্তার হওয়া সবুজ নামে এক তরুণের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে এদের উদ্ধার করা হয়েছে। সবুজও পাচারকারী দলের সদস্য বলে জানিয়েছে পুলিশ।

সূত্র: দ্য হিন্দু।