ভারতের বন্যায় ডুবছে নেপাল

ভারতের হস্তক্ষেপের কারণে দক্ষিণাঞ্চলে বন্যা ছাড়াও অন্যান্য প্রাকৃতিক দুর্যোগের মতো পরিস্থিতির শিকার হচ্ছে নেপাল। সম্প্রতি এমন অভিযোগ তুলেছেন নেপালের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাম বাহাদুর থাপা।

দেশটির সংসদীয় কমিটির এক বৈঠকে তিনি বলেন, নেপালের সঙ্গে সীমান্ত এলাকায় ভারত অনেক অবকাঠামো নির্মাণ করেছে। এগুলোর কারণে বহু বছর ধরে নেপালকে ভুগতে হচ্ছে। ভারতের বন্যায় ডুবে যাচ্ছে নেপাল।

গত এক মাসে দেশটিতে বাস্তুচ্যুত হয়েছেন ১০ লাখের বেশি মানুষ। বন্যা-ভূমিধসে দেশটিতে মারা গেছে অন্তত ১১৭ জন। এদিকে বন্যায় ভারতে মারা গেছে অন্তত ১০১ জন। বাস্তুহারা হয়েছে ৩০ লাখ মানুষ।

করোনাভাইরাসের মধ্যে দক্ষিণ এশিয়া ও চীনে আঘাত হেনেছে বন্যা। ভারি বৃষ্টিপাতে নদ-নদীর পানি বেড়ে যাওয়ায় নেপাল, ভারত ও বাংলাদেশের ১০ লাখ মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। হাজার হাজার মানুষ নিজেদের ঘরবাড়ি ছেড়ে উঁচু স্থানে আশ্রয় নিয়েছে।

নেপালের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, গত এক মাসে বর্ষাসংক্রান্ত দুর্ঘটনায় দেশটিতে অন্তত ১১৭ জন মারা গেছে। এর মধ্যে পার্বত্য এলাকায় ভূমিধস ও দক্ষিণের সমতল অঞ্চলে বন্যার কারণে এসব প্রাণহানির ঘটনা ঘটে।

অন্তত ৪৭ জন নিখোঁজ রয়েছে। আহত হয়েছে ১২৬ জন। ভারতের সঙ্গে বন্যা নিয়ন্ত্রণ নিয়ে শিগগির বৈঠকে বসতে যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন নেপালের পানিমন্ত্রী বর্ষাম্যান পুন।