ভারতের ত্রিপুরায় করোনায় মৃতের পরিবার পাবে ১০ লাখ টাকা

ভারতের ত্রিপুরায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া ব্যক্তির পরিবারকে ক্ষতিপূরণ হিসেবে ১০ লাখ টাকা করে দেবে রাজ্য সরকার।

তিন কিস্তিতে এ টাকা দেবে ত্রিপুরা সরকার। প্রথম দুই কিস্তি তিন লাখ টাকা করে এবং শেষ কিস্তিতে বাকি চার লাখ টাকা।

এখন পর্যন্ত ত্রিপুরায় ৮৩ জনের মৃত্যু হয়েছে করোনায়। রাজ্য সরকার ইতিমধ্যে এ বিষয়ে পদক্ষেপ নিয়েছে। স্বাস্থ্য দফতর মৃতের তালিকা সংগ্রহ করেছে।

রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব গত ৭ মে ওই ক্ষতিপূরণের ঘোষণা করেছিলেন। দেশটির এক সরকারি কর্মকর্তা জানিয়েছেন, করোনায় মৃতের পরিবারকে ক্ষতিপূরণের টাকা দেয়ার ব্যবস্থা করার জন্য মুখ্য সচিবকে নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী, মৃত্যু হলে সাধারণ নাগরিকদের পাশাপাশি কোভিডযোদ্ধা চিকিৎসক, সেবিকা, স্বাস্থ্যকর্মী, প্যারামেডিকস, পুলিশ, সাংবাদিক, সাফাইকর্মী, আইসিপি স্টাফ, আশা কর্মী, প্রশাসনিক কর্মকর্তা বা কর্মচারীর পরিবারও পাবে এ ক্ষতিপূরণ।

কংগ্রেসের সহসভাপতি তাপস দে বলেছেন, টাকাটা ক্ষতিগ্রস্তরা হাতে পেলে তবে বিশ্বাস হবে। কারণ আগেও সরকার এ রকম প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল। কিন্তু বাস্তবায়িত হয়নি। এতদিনেও ক্ষতিপূরণ না পাওয়াটাই দুর্ভাগ্যজনক।

সিপিমের রাজ্য সম্পাদক গৌতম দাস মৃতের পরিবারকে জাতীয় বিপর্যয় মোকাবেলা তহবিল থেকে এককালীন আর্থিক সাহায্য দেয়ার দাবি জানিয়েছিলেন।

কেন্দ্রীয় সরকার ক্ষতিপূরণ দেয়ার সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করে নেয়ায় চার লাখ টাকা করে দেয়া হবে রাজ্য দুর্যোগ মোকাবেলা তহবিল থেকে।