ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় দাফনের ৯৬ দিন পর স্কুলছাত্রের লাশ উত্তোলন

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে দাফনের ৯৬ দিনপর আদালতের নির্দেশে স্কুল ছাত্র শিশু বায়েজিদের (০৮) লাশ কবর থেকে উত্তোলন করা হয়েছে। দাফনের ৭৯ দিন পরে শিশুর পিতা হেলাল মিয়া প্রতিবেশী মাসুক (৪২) ও তার পরিবারের আরো ৯জনের বিরুদ্ধে করেছেন হত্যা মামলা।

সোমবার সকালে উপজেলার নোয়াগাঁও ইউনিয়নের আইরল (পূর্ব পাড়া) গ্রামের কবরস্থান থেকে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফারজানা প্রিয়াংকার উপস্থিতিতে পুলিশ ওই লাশ উত্তোলন করে মর্গে প্রেরণ করেছে।

মামলার বাদী নিহতের পিতা হেলাল মিয়া অভিযোগে বলেন, তার ছেলে বায়েজিদকে প্রতিবেশী মাসুক মারধর করে তাদের বাড়ির পুকুরের ঘাটলায় ফেলে চলে যায়। নিহত পিতা হেলাল মিয়া ঘটনার ২ মাস পর ঘটনা জেনে এই মামলা করেছেন বলে উল্লেখ করেন।

সরাইল উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফারজানা প্রিয়াংকা বলেন, আদালতের আদেশে সোমবার লাশটি কবর থেকে উত্তোলন করা হয়। লাশটিতে পঁচন ধরলেও শরীরের সব জায়গায় মাংস আছে। ফরেনসিক নিরীক্ষায় সঠিক ফলাফলই আসবে। ময়না তদন্তের পরই পুরো বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে।