বিশ্বে এখন পর্যন্ত করোনায় মৃত্যু ৩৭ লাখ ছাড়াল

এক বছরের বেশি সময় ধরে বিশ্বে তাণ্ডব চালাচ্ছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। এরই মধ্যে কয়েক লাখ মানুষ এই ভাইরাসে প্রাণ হারিয়েছে। আক্রান্তের সংখ্যাও কয়েক কোটি।

ওয়ার্ল্ডোমিটারের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ১৭ কোটি ২৪ লাখ ১১ হাজার ৩৯৬।
এর মধ্যে মারা গেছে ৩৭ লাখ ৬ হাজার ২৯৯ জন। তবে ইতোমধ্যেই সুস্থ হয়ে উঠেছে ১৫ কোটি ৫০ লাখ ৩৯ হাজার ৭১০ জন।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহানে প্রথম করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। দেশটিতে করোনায় প্রথম রোগীর মৃত্যু হয় ২০২০ সালের ৯ জানুয়ারি। ওই বছরের ১৩ জানুয়ারি চীনের বাইরে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয় থাইল্যান্ডে। পরে ধীরে ধীরে বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে পড়ে।

করোনা প্রাদুর্ভাবের পরিপ্রেক্ষিতে ২০২০ সালের ৩০ জানুয়ারি বৈশ্বিক স্বাস্থ্য জরুরি অবস্থা ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। এরপর ২ ফেব্রুয়ারি চীনের বাইরে করোনায় প্রথম কোনো রোগীর মৃত্যুর ঘটনা ঘটে ফিলিপাইনে। ওই বছরেরই ১১ মার্চ করোনাকে বৈশ্বিক মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

এখন পর্যন্ত করোনা সংক্রমণ ও মৃত্যুতে শীর্ষ অবস্থানে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। আর কোনো দেশ যুক্তরাষ্ট্রের ধারে-কাছেও নেই। দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ৩ কোটি ৪১ লাখ ৫৪ হাজার ৩০৫। এর মধ্যে মারা গেছে ৬ লাখ ১১ হাজার ২০ জন। ইতোমধ্যেই সুস্থ হয়ে উঠেছে ২ কোটি ৭৯ লাখ ৮৬ হাজার ৫১১ জন।

করোনা সংক্রমণে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে ভারত। দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ২ কোটি ৮৪ লাখ ৪০ হাজার ৯৮৮। এর মধ্যে মারা গেছে ৩ লাখ ৩৮ হাজার ১৩ জন। এছাড়া সুস্থ হয়ে উঠেছে ২ কোটি ৬৩ লাখ ৮২ হাজার ৮৯৭ জন।

লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল করোনা সংক্রমণে তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে। দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ১ কোটি ৬৭ লাখ ২০ হাজার ৮১। এর মধ্যে মারা গেছে ৪ লাখ ৬৭ হাজার ৭০৬ জন। অপরদিকে সুস্থ হয়ে উঠেছে ১ কোটি ৫১ লাখ ৬৮ হাজার ৩৩০ জন।

করোনা সংক্রমণ ও মৃত্যুতে এর পরেই রয়েছে ফ্রান্স, তুরস্ক, রাশিয়া, যুক্তরাজ্য, ইতালি, আর্জেন্টিনা, জার্মানি, স্পেন, কলম্বিয়া, ইরান, পোল্যান্ড, মেক্সিকো, ইউক্রেন, পেরুর মতো দেশগুলো। এখন পর্যন্ত ২২০টির বেশি দেশ ও অঞ্চলে এই প্রাণঘাতী ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে।