বিশ্বব্যাংকের প্রতিবেদন বদলের কথা অস্বীকার আইএমএফ প্রধানের

বিশ্বব্যাংকে কর্মরত থাকা অবস্থায় প্রতিবেদন বদলে দেওয়ার কথা অস্বীকার করেছেন আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) প্রধান ক্রিস্টালিনা জর্জিয়েভা। বৃহস্পতিবার তিনি তার বিরুদ্ধে আনীত এ অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছেন।

এক দিন আগে স্বাধীন এক অনুসন্ধানে দেখা গেছে, চীনের র‍্যাংকিং বাড়াতে কর্মীদের চাপ দিয়ে প্রতিবেদন বদলাতে বাধ্য করেছিলেন ক্রিস্টালিনা। ইন্ডিয়া টুডে। বিশ্বব্যাংকের অনুসন্ধানে দেখা গেছে, ২০১৮ ও ২০১৯ সালের ডুয়িং বিজনেস প্রতিবেদন তৈরিতে অনিয়ম হয়েছে।

এর পরই প্রতিবেদন দুটি সরিয়ে নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে সংস্থাটি। অনিয়মের ঘটনায় বিশ্ব ব্যাংকের তত্কালীন প্রধান নির্বাহী ক্রিস্টালিনা জর্জিয়েভার সম্পৃক্ততাও পাওয়া গেছে। তবে বৃহস্পতিবার বুলগেরিয়ার নাগরিক ক্রিস্টালিনা জর্জিয়েভা ঐ প্রতিবেদনটি প্রত্যাখ্যান করেছেন।

২০১৯ সালের অক্টোবরে আইএমএফে যোগ দেন তিনি। এক বিবৃতিতে জর্জিয়েভা বলেন, ‘বিশ্বব্যাংকের ২০১৮ সালের ডুয়িং বিজনেস রিপোর্টের ডাটা অনিয়ম তদন্ত এবং এর সঙ্গে আমার সম্পৃক্ততা নিয়ে দেওয়া বর্ণনার সঙ্গে আমি মৌলিকভাবে দ্বিমত পোষণ করছি।’ জর্জিয়েভা জানিয়েছেন, তিনি আইএমএফ বোর্ডকে পরিস্থিতি জানিয়েছেন।