বিবিসির সাংবাদিক সারাহকে রাশিয়া ছাড়ার নির্দেশ

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির সাংবাদিক সারাহ রেইনসফোর্ডকে এ মাসের মধ্যেই রাশিয়া ছাড়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। রাশিয়ার সাংবাদিকদের সঙ্গে লন্ডনের বৈষম্যমূলক আচরণের পাল্টা জবাব হিসেবে এ পদক্ষেপ নিয়েছে মস্কো।

মস্কোতে কর্মরত সারাহ রেইনসফোর্ড এক টুইট বার্তায় বলেন, জীবনের প্রায় এক-তৃতীয়াংশ সময় মস্কোতে কাটিয়েছি। এখান থেকে বছরের পর বছর সংবাদ পাঠিয়েছি। সেই রাশিয়া থেকে তাড়িয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত খুবই কষ্টদায়ক। যারা আমাকে সমানুভূতি জানিয়েছেন, তাদের সবাইকে ধন্যবাদ।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, বিদেশি সাংবাদিক হিসেবে রাশিয়ায় থেকে কাজ করার ব্যাপারে যে অনুমতিপত্র ছিল সারাহ রেইনসফোর্ডের, চলতি মাসের পর সে ব্যাপারে মেয়াদ না বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে মস্কো।

ফলে আগস্টে ভিসার মেয়াদ শেষ হওয়ার পর তিনি আর রাশিয়ায় থাকতে পারবেন না। লন্ডনে কাজ করা রাশিয়ার সাংবাদিকদের ভিসার মেয়াদ বাড়ানোর আবেদন লন্ডন প্রত্যাখ্যান করায় পাল্টা পদক্ষেপ হিসেবে মস্কো এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

রাশিয়ার মদদপুষ্ট সম্প্রচারমাধ্যম আরটি ও অনলাইন সংবাদমাধ্যম স্পুটনিককে কাজ করার অনুমতি দিচ্ছে না ব্রিটেন। এর পাল্টা হিসেবে সারাহ রেইনসফোর্ডকে ফিরে যেতে হচ্ছে। বিবিসির মহাপরিচালক টিম ডেভি বলেছেন, ‘গণমাধ্যমের স্বাধীনতার ওপর সরাসরি আক্রমণ’ করছে রাশিয়া।

সূত্র: রয়টার্স।