বিদেশী হস্তক্ষেপ ছাড়াই সিরিয়ার জন্য রাজনৈতিক সমাধান প্রয়োজন: রাশিয়া

রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ বলেছেন, যুদ্ধবিধ্বস্ত সিরিয়ার জন্য প্রয়োজন রাজনৈতিক সমাধান তবে সেক্ষেত্রে বিদেশি কোনো হস্তক্ষেপ থাকতে পারবে না। এজন্য অবশ্যই জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে পাস হওয়া ২২৫৪ নম্বর প্রস্তাব অনুসরণ করতে হবে।

গতকাল (বৃহস্পতিবার) রাশিয়ার রাজধানী মস্কোয় জাতিসংঘের সিরিয়া বিষয়ক বিশেষ দূত গেইর পেডারসেনের সঙ্গে বৈঠকের সময় ল্যাভরভ এসব কথা বলেছেন।

২০১৫ সালের ১৮ ডিসেম্বর জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে ২২৫৪ নম্বর প্রস্তাব সর্বসম্মতভাবে পাস হয়। ওই প্রস্তাবে সিরিয়ায় যুদ্ধবিরতির বাস্তবায়ন এবং রাজনৈতিক সমাধানের আহ্বান জানানো হয়। প্রস্তাবে জাতিসংঘের তত্ত্বাবধানে সিরিয়ায় বিশ্বাসযোগ্য, অংশগ্রহণমূলক ও অসাম্প্রদায়িক সরকার গঠনের কথা বলা হয়।

নয় মাস বিরতির পর গত সোমবার জেনেভায় জাতিসংঘের মধ্যস্থতায় সিরিয়া বিষয়ক শান্তি আলোচনার তৃতীয় অধিবেশন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ বৈঠকের প্রশংসা করে ল্যাভরভ বলেন, যদিও এতে সমস্ত সমস্যার সমাধান হয়ে যায় নি বা সব বিষয়ে ঐকমত্য প্রতিষ্ঠিত হয় নি, তারপরও এ বৈঠক অনুষ্ঠানের গুরুত্ব রয়েছে এবং এটি অনেকটাই ফলপ্রসূ হয়েছে।

রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সিরিয়া সমস্যা সমাধানের ক্ষেত্রে দেশটির সার্বভৌমত্ব এবং ভৌগোলিক অক্ষণ্ডতা রক্ষা করা জরুরি।

বৈঠকে পেডারসেনও সিরিয়া সংকটের রাজনৈতিক সমাধানের ওপর গুরুত্বারোপ করেন। তিনি জোর দিয়ে বলেন, সিরিয়ায় মানবিক পরিস্থিতির উন্নতির জন্য দেশটির ওপর থেকে অর্থনৈতিক অবরোধ অবশ্যই প্রত্যাহার করতে হবে।