বিদেশী সেনাদের অবশ্যই সিরিয়া থেকে চলে যেতে হবে: রায়িসি

গত এক দশক ধরে ইহুদিবাদী ইসরাইল এবং পাশ্চাত্যের মদদপুষ্ট সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে সিরিয়ার বীরত্বপূর্ণ প্রতিরোধের ভূঁয়সী প্রশংসা করেছেন ইরানের প্রেসিডেন্ট সাইয়্যেদ ইব্রাহিম রায়িসি। একইসঙ্গে সিরিয়ার ভূখণ্ড থেকে অবশিষ্ট বিদেশী সেনাদের অবিলম্বে প্রত্যাহার করে নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন রায়িসি।

আজ মঙ্গলবার ইরানের প্রেসিডেন্ট সাইয়্যেদ ইব্রাহিম রায়িসির শপথ অনুষ্ঠানে অংশ নিতে আসা সিরিয়ার সংসদ স্পিকার হামুদা সাব্বাগের সঙ্গে সাক্ষাতে তিনি এ মন্তব্য করেন।

প্রেসিডেন্ট রায়িসি বলেন, সিরিয়ার সরকার এবং জনগণ হেব্রু-পাশ্চাত্য সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে সাহসিক প্রতিরোধ সক্ষমতা দেখিয়েছে এবং তারা বিজয় অর্জন করেছে। সিরিয়ার জাতি যাতে পূর্ণ শক্তি দিয়ে পুর্নগঠন কার্যক্রম শুরু করতে পারে সেজন্য অবিলম্বে সিরিয়ার ভূখণ্ড থেকে বাকি সেনাদের চলে যাওয়া উচিত বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

সিরিয়ার সরকার ২০১১ সাল থেকে পাশ্চাত্য মদদপুষ্ট সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে আসছে। বিশেষ করে আমেরিকা এবং তার মিত্রদেশগুলো সিরিয়ায় তৎপর বিভিন্ন উগ্র গোষ্ঠীগুলোকে সামরিক এবং আর্থিক সহায়তা দিয়েছে। তবে ইরান এবং রাশিয়ার সহায়তায় সিরিয়ার সরকার তাকফিরি সন্ত্রাসীদের কবল থেকে সিরিয়ার বেশিরভাগ এলাকা দখলমুক্ত করতে সক্ষম হয়েছে।

রাজনৈতিক এবং অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে তেহরান-দামেস্কের মধ্যে সম্পর্ক উন্নয়নের প্রতি গুরুত্বারোপ করে ইরানের নব নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট বলেন, দুই দেশের ঐক্য এবং সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে এবং ভ্রাতৃত্বপূর্ণ সম্পর্ক আরো বাড়ানোর ব্যাপারে কোনো ধরনের সীমাবদ্ধতা থাকবে না।

সূত্রঃ পার্সটুডে