বার্সেলোনার অনুশীলনে যাচ্ছেন না মেসি

রোববার (৩০ আগস্ট) করোনা টেস্ট ও সোমবার থেকে শুরু হওয়া প্রাক-মৌসুম অনুশীলনে যোগ দেবেন না লিওনেল মেসি। ক্লাব বার্সেলোনাকে বুরোফ্যাক্স করে এমনটাই নাকি জানিয়ে দিয়েছেন মেসি, দাবী ইউরোপিয়ান গণমাধ্যমগুলোর।

এতে করে মেসির স্পেন ছাড়ার খবরের সত্যতা আরো প্রবল হল। এদিকে, দলবদলে কোনো অনিয়ম ধরা পরলে মেসি পড়তে পারেন ফিফার নিষেধাজ্ঞায়। সে জন্য মেসি নাকি শেষবারের মত বার্সার সঙ্গে বৈঠকে বসতে চান।

লিওনেল মেসি নাকি অবাধ্য। বার্সার হয়ে আর অনুশীলন করতে চান না। বুরোফ্যাক্স করে বার্সাকে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন। শুধু তাই নয়, প্রাক মৌসুম করোনা টেস্টেও থাকবেন না। নতুন কোচ কোম্যানের প্রথম অনুশীলনে থাকছেন না মেসি। আসবেন না ন্যু-ক্যাম্পে। ইউরোপিয়ান গণমাধ্যমগুলো এমন খবর নিশ্চিত করে।

কাগজে কলমে এখনো বার্সেলোনার ফুটবলার লিওনেল মেসি। অন্য কোনো ক্লাবে যেতে হলে ক্লাবকে বুঝিয়ে ব্যাংক একাউন্টে পর্যাপ্ত টাকা দিলেই মিলবে ছাড়পত্র। এর আগে কোনো অনিয়ম ধরা পরলে যে পেতে পারেন ফিফার নিষেধাজ্ঞা। মেসি আইনি জটিলতায় জড়াতে চান না। তাই তো আইনজ্ঞদের পরামর্শ মেনেই করেছেন দ্বিতীয় বুরোফ্যাক্স। আনুষ্ঠানিকভাবে পত্র দেবার আগে রেখেছেন একজন সাক্ষী।

মেসির সঙ্গে বার্সার সম্পর্কটা আত্মার। সেই বিশ্বাসে চিড় ধরেছে। বহু দিনের জমানো ক্ষোভের পরিণতি এমন বিচ্ছেদ, মনে করছে গণমাধ্যমগুলো। মেসি বার্সার বিপক্ষে যুদ্ধে যাচ্ছে। বার্সেলোনা পথেঘাটে তাই বিপ্লবী চে-গুয়েভারার সাজে মেসির এমন ছবি শোভা পাচ্ছে।

 

অন্য কোনো ক্লাবের অফিসিয়াল প্যাডে মেসি স্বাক্ষর করার আগে, আরও একবার নাকি বার্সার কর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে বসতে চান আর্জেন্টাইন সুপারস্টার। আলোচনা সাপেক্ষে রিলিজ ক্লজ নিয়ে ফ্রি খেলোয়াড় হিসেবে যোগ দিতে চান অন্য কোনো ক্লাবে।

করোনার কারণে সেই সুযোগ এখনো আছে এলএমটেনের, দাবী মেসির আইনজীবীদের। বার্সার একটা বড় অংশ নাকি মেসির এই আগ্রহে সায় দিয়েছে। ভক্তদের মনকে এসব গুঞ্জনই যে ওলট-পালট করে।

এতদিনের মেসি-বার্সাকে নিয়ে কানাঘুষার সত্যতা মেলার অবশেষে সুযোগ এসেছে। অনুশীলনে যোগ না দিলেই যে তা ক্যামেরার চোখে ধরা পড়বে। আর জেনে যাবে পুরো বিশ্ব! হৃদয় দুমড়ে মুচরে পত্রিকার শিরোনাম হবে, মেসি যে আর নেই বার্সেলোনায়!