বাগেরহাটে চায়ের দোকানে ক্যারামবোর্ডের উপর থেকে নবজাতক উদ্ধার

বাগেরহাটে চায়ের দোকানে থাকা ক্যারামবোর্ডের উপর থেকে দুই দিন বয়সী এক নবজাতককে উদ্ধার করেছে পুলিশ।সোমবার ভোর ৫টায় ৯৯৯ এ কল পেয়ে বাগেরহাট সদর উপজেলার বেমরতা ইউনিয়নের চিতলী-বৈটপুর গ্রামের সাইদুলের চায়ের দোকান থেকে এই মেয়ে নবজাতককে উদ্ধার করা হয়। নবজাতকটি বাগেরহাট সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। নবজাতকটি সুস্থ আছে বলে জানিয়েছেন সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক।

বাগেরহাট সদর হাসপাতালের শিশু বিষয়ক কনসালটেন্ট ডা. খান শিহান মাহমুদ বলেন, ভর্তি হওয়া মেয়ে নবজাতকটির বয়স আনুমানিক দুই দিন হবে। সে এখন সুস্থ রয়েছে। আমরা শিশুটিকে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা প্রদান করছি।

চিতলী-বৈটপুর গ্রামের শরীফা বেগম বলেন, গভীর রাতে কান্নার শব্দ টের পেয়ে আমার ঘুম ভেঙ্গে যায়। পরে ঘুম থেকে উঠে কান্নার আওয়াজের উৎস খুঁজতে থাকি। এক পর্যায়ে সাইদুলের চায়ের দোকানের পেছনে রাখা ক্যারামবোর্ডের উপরে নবজাতকটিকে দেখতে পাই। পরে আমি ৯৯৯ এ ফোন দিয়ে পুলিশকে বিষয়টি জানাই।

বাগেরহাটের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ ও প্রশাসন) মোঃ আছাদুজ্জামান বলেন, ভোর রাতে ৯৯৯ এ একটি ফোনের মাধ্যমে আমরা খবর পাই চিতলী-বৈটপুর এলাকায় চায়ের দোকানের ক্যারামবোর্ডের উপর একটি নবজাতক পড়ে আছে। আমরা তাৎক্ষণিকভাবে ঘটনাস্থল থেকে নবজাতকটিকে উদ্ধার করে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করি।

বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আজিজুর রহমান বলেন, নবজাতকটি আপতত পুলিশ পাহারায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। পরবর্তীতে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী তাকে বেবি হোমে স্থানান্তর করা হবে। ইতিমধ্যে নবজাতককে দত্তক নিতে বাগেরহাট জেলা শিশুকল্যাণ বোর্ডের কাছে আবেদন করেছেন একাধিক নিঃসন্তান দম্পতি। শিশু কল্যাণ বোর্ডের সভায় সিদ্ধান্ত মোতাবেক আবেদনগুলো যাচাই-বাছাই করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে।