বাইডেনকে ইরানের ব্যাপারে ট্রাম্পের ব্যর্থ নীতি থেকে সরে আসতে হবে: মুখপাত্র

ইরান বলেছে, দেশটির বিরুদ্ধে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ব্যর্থ হয়ে যাওয়া ‘সর্বোচ্চ চাপ প্রয়োগের’ নীতি থেকে বর্তমান প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে সরে আসতে হবে। ইরানের ওপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞা কার্যকরভাবে প্রত্যাহার করার মাধ্যমে সে কাজ করতে পারে বাইডেন প্রশাসন।

ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সাঈদ খাতিবজাদে শুক্রবার রাতে নিজের অফিসিয়াল টুইটার পেজে দেয়া এক পোস্টে এ আহ্বান জানান। তিনি বলেন, ইরানের কয়েক ব্যক্তির নাম নিষেধাজ্ঞার তালিকা থেকে বাদ দেয়ার ঘটনা ভিয়েনায় চলমান সংলাপের ওপর কোনো প্রভাব ফেলবে না। এ বিষয়টিকে আমেরিকার সদিচ্ছার প্রমাণ হিসেবেও দেখছে না তেহরান।কারণ, ইরানের বিরুদ্ধে আমেরিকার অর্থনৈতিক সন্ত্রাসবাদ এখনো চলছে।

খাতিবজাদে বলেন, বাইডেনকে ট্রাম্পের পদাঙ্ক অনুসরণ বন্ধ করতে হবে এবং কার্যকরভাবে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে একথা প্রমাণ করতে হবে যে, ট্রাম্পের ব্যর্থ হয়ে যাওয়া নীতি এখন আর ওয়াশিংটন অনুসরণ করছে না।

প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের নেতৃত্বাধীন মার্কিন সরকার দাবি করছে, ভিয়েনায় চলমান সংলাপের মাধ্যমে আমেরিকাকে পরমাণু সমঝোতায় ফিরিয়ে আনতে চায় ওয়াশিংটন।

বাইডেন প্রশাসনের কর্মকর্তারা বহুবার ইরানের বিরুদ্ধে আমেরিকার কথিত ‘সর্বোচ্চ চাপ প্রয়োগের’ নীতি ব্যর্থ হয়েছে বলে স্বীকার করেছেন। কিন্তু তারা ইরানের পরমাণু সমঝোতায় ফিরে আসার ব্যাপারে নিজেদের সদিচ্ছা প্রমাণ করতে ব্যর্থ হয়েছেন। পরমাণু সমঝোতা পুনরুজ্জীবনের লক্ষ্যে ভিয়েনায় গত এপ্রিল থেকে এ পর্যন্ত পাঁচ দফা আলোচনা কোনো ফলাফল ছাড়াই শেষ হয়েছে। রুদ্ধদ্বার কক্ষে অনুষ্ঠিত এসব আলোচনার বিষয়বস্তু প্রকাশ করা হচ্ছে না।

সূত্রঃ পার্সটুডে