বরখাস্তকৃত সেই ডিআইজি প্রিজনের বিরুদ্ধে দুদকের চার্জশিট

কারা অধিদফতরের সাময়িক বরখাস্তকৃত ডিআইজি প্রিজন বজলুর রশিদের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলায় আদালতে চার্জশিট (অভিযোগপত্র) দিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

বুধবার দুপুরে ঢাকার সংশ্লিষ্ট বিশেষ জজ আদালতে এ চার্জশিট দাখিল করেন দুদকের প্রধান কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মো. নাসিরউদ্দীন।

দুদকের পরিচালক (জনসংযোগ) প্রণব কুমার ভট্টাচার্য বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

চার্জশিটে বলা হয়েছে, আসামি বজলুর রশীদ নামে-বেনামে অসাধু উপায়ে তার জ্ঞাত-আয়ের উৎসের সহিত অসঙ্গতিপূর্ণ ৩ কোটি ১৪ লাখ ৩৫ হাজার ৯০২ টাকা মূল্যের সম্পদ অর্জন করেন।

প্রসঙ্গত, ‘বেপরোয়া ডিআইজি প্রিজনের ঘুষ-কাণ্ড, স্ত্রী কুরিয়ার সার্ভিসে নেন কোটি কোটি টাকা’- শিরোনামে ৬ অক্টোবর যুগান্তরে অনুসন্ধানী প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়।

জানা গেছে, যুগান্তরে ঘুষ-দুর্নীতির রিপোর্ট প্রকাশিত হওয়ায় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও কারা অধিদফতরে পৃথক বৈঠক হয়। এরপর বিকালে আইজি প্রিজন ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোস্তফা কামাল পাশা বজলুর রশীদকে শোকজ করেন। যুগান্তরে প্রকাশিত প্রতিবেদনের বিষয়ে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তাকে জবাব দিতে বলা হয়েছে। চিঠির স্মারক নং : ১৩৪৬।

দুদকের অভিযোগপত্রে বলা হয়, ঘুষের টাকা লেনদেন করতে বজলুর রশীদ নিজের ঠিকানা গোপন করে স্ত্রীর নামে মোবাইল ফোনের সিম কেনেন। সরাসরি টাকা না পাঠিয়ে ঘুষ চ্যানেলের মাধ্যমে তিনি টাকার আদান-প্রদান করতেন। এর মধ্যে এসএ পরিবহনের মাধ্যমে প্রায় কোটি টাকা কুরিয়ার করার ২৪টি রশিদের কথা উল্লেখ করা হয়েছে দুদকের অভিযোগপত্রে।