ফেনীতে জয়নাল হাজারীর বাড়িতে গুলি-ভাংচুর

আওয়ামীলীগের উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য ও ফেনী-২ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য জয়নাল আবেদীন হাজারীর ফেনী শহরের মাষ্টারপাড়ার বাড়ীতে একদল মুখোশধারী দুর্বৃত্ত হামলা-ভাংচুর করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার রাত ৩টার দিকে এ হামলা ও ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে অভিযোগ করেন জয়নাল হাজারীর ঘনিষ্ট হিসেবে পরিচিত জেলা যুবলীগের সাবেক আহ্বায়ক এম. আজাহারুল হক আরজু।

তিনি অভিযোগ করেন, রাত ৩টার দিকে কিছু সংখ্যক মুখোশপরা দূর্বৃত্ত অতর্কিতে জয়নাল হাজারীর মাষ্টারপাড়ার শৈলকুটিরে প্রবেশ করে। তারা বাড়ীর সামনে মুজিব উদ্যানে ১৫ আগষ্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর মৃত্যুবার্ষিকী ও শোক দিবস পালনের জন্য আয়োজনের চেয়ার-টেবিল ভাংচুর করে, ব্যানার ফেষ্টুন ছিড়ে ফেলে এবং ৩-৪ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়ে চলে যায়।

এম. আজাহারুল হক জানান, সন্ত্রাসী হামলার সময় জয়নাল হাজারী বাড়ীতে ছিলেন না। তিনি শুক্রবার ভোরে ঢাকা থেকে ফেনী পৌঁছেছেন। ঘটনার পরপরই বিষয়টি স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনকে অবহিত করা হয়েছে। খবর পেয়ে ফেনী মডেল থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এ ঘটনায় জয়নাল হাজারী লিখিত অভিযোগ দেওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

আজাহারুল হক আরজু দাবি করেন, সন্ত্রাসীরা মুখোশ পরিহিত হলেও কয়েকজনকে চিনতে পেরেছেন। তবে তাৎক্ষনিক তাদের নাম জানাতে রাজী হননি। তিনি বলেন, তদন্তকালে তারা তদন্ত সংস্থাকে এসব নাম জানাবেন।

১৫ আগষ্ট সকালে জয়নাল হাজারীর মাষ্টারপাড়ার বাড়ির সামনে মুজিব উদ্যানে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পণ এবং তিনি মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে মতবিনিময় করার কথা রয়েছে। জয়নাল হাজারীর আগমনকে ঘিরে গত ক’দিন ধরেই দীর্ঘদিন ঝিমিয়ে থাকা তার অনুসারীরা সক্রিয় হয়ে উঠেছে। এনিয়ে দুটি পক্ষ মুখোমুখি অবস্থানে রয়েছে।

এর আগে বুধবার ও বৃহস্পতিবার জয়নাল হাজারী তার ফেসবুক লাইভে ১৫ আগস্ট ফেনীতে ২১শে আগস্টের মতো অঘটনের আশংকা প্রকাশ করেছেন। তার দাবী, প্রতিপক্ষ গ্রুপের লোকজন তিনি ও তার সহযোগি আরজু ও শাখাওয়াতকে হত্যা করার পরিকল্পনা করছে। একসময়ের দৌর্দন্ড প্রতাপশালী জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জয়নাল হাজারীর সঙ্গে বর্তমান সাধারণ সম্পাদক নিজাম হাজারীর বিরোধ চলে আসছে।

পুলিশ সুপার খোন্দকার নূরুন্নবী জানান, জয়নাল হাজারীর বাড়িতে হামলা ও ভাংচুরের অভিযোগ পেয়ে পুলিশ তাৎক্ষণিকভাবে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। তিনি বলেন, প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। ঘটনার বিষয়ে তদন্ত চলছে। এছাড়া ওই এলাকায় নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে।