ফিলিস্তিনি মানবাধিকারকর্মী সেই ভাইবোনকে ছেড়ে দিয়েছে ইসরায়েল

ফিলিস্তিনি মানবাধিকারকর্মী এবং অ্যাকটিভিস্ট সেই যমজ দুই ভাইবোনকে মুক্তি দিয়েছে ইসরায়েল। আটকের কয়েক ঘণ্টা পর ইসরায়েলি পুলিশ তাদের ছেড়ে দেয়।

আল-জাজিরার এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ২৩ বছর বয়সী দুই আন্দোলনকর্মীর নাম মুনা আল-কুর্দ ও মোহাম্মদ আল-কুর্দ। তারা শেখ জাররাহতে চলমান ফিলিস্তিনি আন্দোলনের সম্মুখসারির কর্মী। অধিকৃত পূর্ব জেরুজালেমের শেখ জাররাহ থেকে ফিলিস্তিনিদের উচ্ছেদের প্রতিবাদে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন তারা।

মুক্তির পর মুনা আল-কুর্দ বলেন, আমাদের ভয় দেখাতে দখলদাররা যাই করুক, যতবার গ্রেপ্তার করুক তাতে আমরা ভীত নয়। আমরা আমাদের বাড়িতে থাকব এবং আমাদের জন্ম ও বেড়ে ওঠার ভূমি রক্ষায় প্রতিরোধ আন্দোলন চালিয়ে যাব।

মুনার ভাই মোহাম্মদ আল-কুর্দ বলেন, আমরা সব অবিচারের বিরুদ্ধে কথা বলে যাব এবং আমাদের বাড়ি ও ভূমি রক্ষায় আরও তৎপর থাকব।
এর আগে রোববার (৬ জুন) মুনা ও মোহাম্মদকে গ্রেপ্তার করেছিল ইসরায়েলি পুলিশ।গ্রেপ্তারের পর অ্যাকটিভিস্টদের বাবা গণমাধ্যমকে বলেন, ফিলিস্তিনিদের অস্ত্র হলো ক্যামেরা ও ভাষা। কিন্তু ইসরায়েলিরা অত্যাধুনিক অস্ত্রসমৃদ্ধ।

এর আগে, আল-জাজিরা আরবির সাংবাদিক গিভারা বিডেইরিকে গ্রেপ্তারের পর ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। তিনি শেখ জাররাহ গিয়েছিলেন একটি বিক্ষোভের খবর সংগ্রহের জন্য। তার গ্রেপ্তারে বিশ্বজুড়ে নিন্দার ঝড় ওঠে।