ফিলিস্তিনি বৃদ্ধের ঘাড়ে হাঁটু চেপে ধরল ইসরায়েলি সেনা

অধিকৃত পশ্চিম তীরে একজন বয়োজ্যেষ্ঠ ফিলিস্তিনি ব্যক্তির ঘাড়ে হাঁটু চেপে ধরেছে দখলদার রাষ্ট্র ইসরায়েলের একজন সেনা সদস্য। নৃশংস সেই ঘটনার ভিডিও এরই মধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পরেছে।

মঙ্গলবার (১ সেপ্টেম্বর) সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশিত সেই ভিডিওতে দেখা যায়, ৬৫ বছর বয়সী ফিলিস্তিনি বিক্ষোভকারী খাইরি হানৌনের ঘাড়ে হাঁটু চেপে ধরেছে একজন ইসরায়েলি সেনা। এ সময় তার সহকর্মীরা সাংবাদিকদের দিকে বন্দুক তাক করে যাতে তারা ওই ঘটনা ছবি তুলতে না পারে।

এমনকি একটি প্রজেক্টাইলও ছোঁড়া হয়। যদিও এটা স্টান গ্রেনেড নাকি টিয়ার গ্যাস তা স্পষ্ট নয়।

ইসরায়েলের ওই সেনা সদস্য হানৌনকে মাটিতে ফেলে দিয়ে তার সঙ্গে ধস্তাধস্তি করে এবং তার ঘাড়ে হাঁটু চেপে ধরে। পরে তাকে হাতকড়া পরায়।

হানৌন বলেন, তিনি অধিকৃত পশ্চিম তীরের তুলকারেম শহরের কাছে শুফা গ্রামে কয়েক ডজন ব্যক্তির সঙ্গে বিক্ষোভে অংশ নেন। ইসরায়েলি কর্তৃপক্ষ সেখানকার একটি জমিতে শিল্প পার্ক করতে চাইছে। এর প্রতিবাদেই বিক্ষোভ শুরু করেছে স্থানীয়রা।

ভিডিওতে দেখা যায়, একজন বিক্ষোভকারীর কাছে থেকে ফিলিস্তিনের পতাকা ছিনিয়ে নেওয়ার পর একজন ইসরায়েলি সেনাকে ধাক্কা মারেন হানৌন।

তিনি বলেছিলেন, ইসরায়েলি সেনারা আমাকে খুব জোরে আঘাত করে এবং একজন কয়েক মিনিটের জন্য আমার ঘাড়ে তার হাঁটু চেপে ধরেছিল।

হানৌন আরও বলেন, যাতে আর বেশি চাপ না থাকে সে জন্য আমি শান্ত হয়েছিলাম। কিন্তু মানুষজন আমাকে টেনে বের করে। তবে গুরুতর আহত হননি বলে জানিয়েছেন তিনি।

উল্লেখ্য, কয়েক মাস আগে যুক্তরাষ্ট্রে একজন পুলিশ অফিসার হাঁটু দিয়ে কৃষ্ণাঙ্গ ব্যক্তি জর্জ ফ্লয়েডের ঘাড়ে চেপে ধরেন। এ ঘটনায় তার মৃত্যু হয়। এরপর যুক্তরাষ্ট্রসহ বিশ্বজুড়ে বর্ণবাদ বিরোধী আন্দোলন ছড়িয়ে পড়ে।