ফিলিস্তিনি ইস্যুর ন্যায্য-স্থায়ী সমাধান চায় সৌদি আরব

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে সৌদি আরবের বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ জানিয়েছেন, সৌদি আরব ফিলিস্তিনিদের জন্য একটি ন্যায্য এবং স্থায়ী সমাধান দেখতে চায়।

সোমবার (৭ সেপ্টেম্বর) সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থার বরাত দিয়ে সংবাদ মাধ্যম  এ তথ্য জানায়।

ফোনে সৌদি বাদশাহ ও মার্কিন প্রেসিডেন্ট বিষয়টি নিয়ে কথা বলেন। এ সময় ইসরাইলের সঙ্গে আরব আমিরাতের শান্তিপূর্ণ সম্পর্ক স্থাপনে যুক্তরাষ্ট্রের প্রচেষ্টাকে সাধুবাদ জানান তিনি।

তবে তিনি আরও জানান, আরব পিস ইনিশিয়েটিভের ওপর ভিত্তি করে ফিলিস্তিনি ইস্যুর একটি ন্যায্য এবং স্থায়ী সমাধান দেখতে চায় সৌদি আরব।

ওই প্রস্তাবের আওতায়, ফিলিস্তিনিদের সঙ্গে রাষ্ট্রীয় চুক্তি এবং ১৯৬৭ সালের মধ্যপ্রাচ্য যুদ্ধের পর দখল করা অঞ্চল থেকে ইসরাইল নিজেদের পুরোপুরি প্রত্যাহার করলে, বিনিময়ে আরব দেশগুলো ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করবে।

সৌদি আরব ইসরাইলকে রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দেয় না। তবে চলতি মাসে সৌদি জানায়, আমিরাত ও ইসরাইলের মধ্যে ফ্লাইট চালু এবং এক্ষেত্রে ইসরাইলি প্লেনকেও আকাশসীমা ব্যবহারের অনুমতি দেবে দেশটি।

অপরদিকে, হোয়াইট হাউসের এক মুখপাত্র জানান, ওই ফোনালাপে ট্রাম্প বাদশাহ সালমানের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানান এবং পরে তারা আঞ্চলিক সুরক্ষা নিয়েও আলোচনা করেন।

সূত্র: আল জাজিরা