ফারুকের অবস্থার আরও অবনতি, নেয়া হতে পারে সিঙ্গাপুর

আরও অবনতি হয়েছে ঢাকাই সিনেমার নন্দিত অভিনেতা ও ঢাকা-১৭ আসনের সংসদ সদস্য আকবর হোসেন পাঠান ফারুকের শারীরিক অবস্থার।

বিভিন্ন ধরনের চিকিৎসা দেওয়া হলেও তার শারীরিক অবস্থার কোনও উন্নতি হচ্ছে না। সারছে না জ্বর। দুশ্চিন্তা বাড়ছে। এ জন্য তাকে নেওয়া হতে পারে।

জানা গেছে, অনেক দিন ধরেই ঠান্ডা-জ্বরে আক্রান্ত নায়ক ফারুক। গত ১৮ আগস্ট রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল তাকে। ভাবা হচ্ছিল তিনি করোনায় আক্রান্ত।

কিন্তু কয়েক দফা করোনা টেস্ট করা হলেও রেজাল্ট নেগেটিভ আসে। সে সময় বেশ কয়েকদিন হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে কিছুটা সুস্থ হওয়ায় ২৬ আগস্ট বাসায় ফেরেন তিনি।
এরপর শারীরিক অবস্থা খারাপ হওয়ায় গত ৩১ আগস্ট তাকে আবার ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

আবারও তার করোনার নমুনা পরীক্ষা করা হলে তা নেগেটিভ আসে। কিন্তু জ্বর না সাড়ায় দুশ্চিন্তা বাড়ছে এই অভিনেতাকে নিয়ে। ইউনাইটেডে বেশ কয়েকদিন চিকিৎসা শেষেও তার শারীরিক অবস্থার কোনও উন্নতি হয়নি। এরপর তাকে গত ৫ সেপ্টেম্বর অ্যাপোলো হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

এই তথ্য গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন নায়ক ফারুকের স্ত্রী ফারহানা ফারুক। তিনি জানান, এখন পর্যন্ত তার শারীরিক অবস্থা আশঙ্কাজনক। চিকিৎসকরা বলছেন, তার রক্তে সংক্রমণের জটিলতা দেখা দিয়েছে, যা থেকে খারাপ কিছু হতে পারে। সেজন্য দ্রুত উন্নত চিকিৎসা নিশ্চিত করতে হবে।

ফারহানা ফারুক বলেন, দ্রুতই তাকে বিদেশে নিয়ে যাবার কথা ভাবছি আমরা। সিঙ্গাপুরে মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালের সঙ্গে যোগাযোগও হচ্ছে। করোনার কারণে বর্তমানে বিদেশে যাতায়াতে অনেক জটিলতা আছে। এসব মোকাবিলা করে উনাকে দ্রুত সিঙ্গাপুরে নেওয়ার চেষ্টা করা হবে।

এ মুহূর্তে স্বামীর সুস্থতার জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন ফারহানা ফারুক।