ফাইজার ও মডার্নার ভ্যাকসিনকে এখনো অনুমোদন দেয় নি এফডিএ

মার্কিন খাদ্য এবং ওষুধ প্রশাসন বা এফডিএ এখনো ফাইজার-বায়োনটেক এবং মডার্নার ভ্যাকসিন অনুমোদন দেয় নি। গত ডিসেম্বরে হতে এই দুটি ভ্যাকসিন আমেরিকা এবং বিশ্বের বিভিন্ন দেশে জরুরি পরিস্থিতিতে ব্যবহার করা হচ্ছে।

আমেরিকায় নতুন করে আবার করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব জোরদার হয়েছে। এই প্রেক্ষাপটে ফাইজার এবং মডার্নার ভ্যাকসিন অনুমোদন দেয়ার জন্য এফডিএ’র ওপর চাপ সৃষ্টি করা হয়েছে।

গতকাল (বুধবার) এফডিএ’র মুখপাত্র এক বিবৃতিতে বলেন, “ফাইজার ভ্যাকসিনকে পূর্ণাঙ্গ অনুমোদন দেয়ার জন্য সুনির্দিষ্ট সময়সূচির ব্যাপারে আমরা এই মুহূর্তে কোনো মন্তব্য করতে পারছি না। তিনি বলেন, মার্কিন নাগরিকরা আমাদের কাছ থেকে যেভাবে প্রত্যাশা করে ঠিক তা পূরণের লক্ষ্য সামনে রেখে সম্পূর্ণ গুনাগুন বিচার করে তবেই ফাইজার-বায়োটেনকের করোনা টিকা অনুমোদন দেয়া হবে। এ বিষয়ে এফডিএ দ্রুততার সঙ্গে কাজ করছে বলেও তিনি জানান।” তবে তিনি মান ঠিক রাখার ওপর জোর দিয়েছেন।

এফডিএ’র চূড়ান্ত অনুমোদনের মধ্যদিয়ে মার্কিন সরকার ফাইজার বায়োনটেকের টিকার ব্যাপারে জনগণের আস্থা অর্জন করতে চায়। আমেরিকায় এরইমধ্যে করোনাভাইরাসের ডেল্টা ভেরিয়েন্ট মারাত্মকভাবে ছড়িয়ে পড়েছে।

এর আগে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেছিলেন যে, তিনি আশা করেন শিগগিরই কোভিড-১৯ এর ভ্যাকসিনগুলো পূর্ণ অনুমোদন পাবে। তিনি সেসময় স্বীকার করেছিলেন, কবে এফডিএ এসব ভ্যাকসিনের অনুমোদন দেবে তারা সে ব্যাপারে তাকে সুনির্দিষ্ট কোনো তারিখ জানায় নি তবে সেপ্টেম্বর-অক্টোবর মাসের মধ্যে এসব টিকা পূর্ণাঙ্গভাবে অনুমোদন পাবে বলে তিনি আশা করেন।

করোনাভাইরাসে এ পর্যন্ত আমেরিকায় তিন কোটি ৬০ লাখ মানুষ আক্রান্ত হয়েছে এবং বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন- পরিস্থিতি সামনের দিনগুলোতে আরো বেশি খারাপ হবে। প্রাণঘাতী এই ভাইরাসের আক্রমণে দেশটিতে এ পর্যন্ত ছয় লাখ ৩০ হাজার ৫০৬ জন মারা গেছে। বর্তমানে প্রতিদিন আমেরিকায় ৭০ হাজার মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হচ্ছে বলে মার্কিন সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন বা সিডিসি জানিয়েছে।

সূত্রঃ পার্সটুডে