প্রেসিডেন্ট হলে ইরানের পরমাণু সমঝোতাকে শক্তিশালী করব: বাইডেন

আসন্ন মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট দলীয় প্রার্থী জো বাইডেন বলেছেন, তিনি নির্বাচিত হলে ইরানের সঙ্গে ছয় জাতিগোষ্ঠীর স্বাক্ষরিত পরমাণু সমঝোতাকে আরো বেশি শক্তিশালী করবেন।তিনি ফরেন অ্যাফেয়ার্স ম্যাগাজিনে লেখা এক নিবন্ধে সম্ভাব্য প্রেসিডেন্ট হিসেবে নিজের পররাষ্ট্রনীতি ব্যাখ্যা করতে গিয়ে একথা জানিয়েছেন।

ইরান সম্পর্কে নিজের নীতি জানাতে গিয়ে বাইডেন লিখেছেন, “তেহরানকে সঠিকভাবে পরমাণু সমঝোতায় ফিরে আসতে হবে। যদি তেহরান সেটা করে তাহলে আমিও পরমাণু সমঝোতায় ফিরে যাব এবং এই সমঝোতাকে আরো শক্তিশালী করা ও তা নবায়ন করার লক্ষ্যে মিত্র দেশগুলোকে সঙ্গে নিয়ে কাজ করব।”

বর্তমান মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ২০১৮ সালের ৮ মে আমেরিকাকে পরমাণু সমঝোতা থেকে বের করে নিয়ে তেহরানের ওপর কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেন। ট্রাম্প দাবি করেন, ইরানকে পরমাণু সমঝোতার চেয়ে তার ভাষায় ‘আরো ভালো চুক্তি’ স্বাক্ষরে বাধ্য করার জন্য তেহরানের ওপর ‘সর্বোচ্চ চাপ’ প্রয়োগ করা হয়েছে।

কিন্তু দুই বছরেও ইরানকে আলোচনার টেবিলে ফিরিয়ে নিতে না পারার কারণে ডোনাল্ড ট্রাম্প তার দেশেরই বিভিন্ন মহল থেকে প্রচণ্ড সমালোচনার সম্মুখীন হচ্ছেন। সমালোচকরা বলছেন, পরমাণু সমঝোতা থেকে বেরিয়ে গিয়ে ট্রাম্প আমেরিকাকে তার মিত্র দেশগুলো থেকেও দূরে সরিয়ে দিয়েছেন।