প্রেসিডেন্টের অপসারণের দাবিতে বিক্ষোভে উত্তাল ব্রাজিল

ব্রাজিল প্রেসিডেন্ট জইর বলসোনারোর অপসারণের দাবিতে বিক্ষোভ অব্যাহত রেখেছেন দেশটির জনগণ। স্থানীয় সময় শনিবার (২৪ জুলাই) রিও ডি জেনিরোসহ ব্রাজিলের বড় শহরগুলোতে লাল পোশাক ও মাস্ক পরে বিক্ষোভে অংশ নিয়েছেন হাজার হাজার মানুষ। খবর প্রকাশ করেছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স ও এএফপি।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ব্রাজিলে মহামারি করোনাভাইরাসের বিপর্যয়ের জন্য শুরু থেকেই প্রেসিডেন্ট বলসোনারোর উদাসীনতাকে দায়ী করছেন বিশেষজ্ঞ মহল থেকে শুরু করে দেশটির সাধারণ জনগণ। সে জন্য বিক্ষোভের ডাক দিয়েছে বামপন্থী রাজনৈতিক দল, শ্রমিক ইউনিয়ন ও সামাজিক গোষ্ঠী।

তাদের ডাকে টানা চতুর্থ সপ্তাহের মতো বিক্ষোভ চলছে সেখানে। বলসোনারোর বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি কোভিড-১৯ টিকা কেনায় সরকারি অর্থ আত্মসাত করেছেন। অবশ্য এ অভিযোগ এখনো প্রমাণিত হয়নি, তদন্ত চলছে। বিক্ষোভকারীরা নানা রকম স্লোগান দিচ্ছেন। তার মধ্যে অন্যতম ‘কেউ আর কিছু নিতে পারবে না’, ‘দুর্নীতিবাজ বিদায় হও’।

বিক্ষোভের আয়োজকরা বলছেন, গণতন্ত্র রক্ষা ও ব্রাজিলের অধিবাসীদের জীবন রক্ষার জন্য তাদের এই আন্দোলন। বলসোনারোকে সরিয়ে দেওয়া প্রয়োজন।

৬৫ বছর বয়সী এক সমাজকর্মী বলেন, গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের জন্য লড়াই করতে হবে। বর্তমান সরকারের কর্মকাণ্ডে অনেকেই হতাশ ও নিপীড়নের শিকার। তাদের সকলের উচিত রাস্তায় নেমে বিক্ষোভে অংশ নেওয়া। শনিবার বিকেল পর্যন্ত ব্রাজিলের ২৬ রাজ্যের ২০টিতে প্রেসিডেন্ট বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়েছে।