প্রথমবারের মতো ভারত সফরে যাচ্ছেন ব্লিনকেন

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টোনিও ব্লিনকেন তার দায়িত্ব গ্রহণের পর প্রথমবারের মতো ভারত সফরে যাচ্ছেন। মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের পর আফগানিস্তানের ব্যাপারে উদ্বেগ ক্রমান্বয়ে বৃদ্ধি পাওয়ার প্রেক্ষাপটে তিনি এ সফরে যাচ্ছেন। খবর এএফপির।

মার্কিন পররাষ্ট্র বিভাগ জানায়, ব্লিনকেন কুয়েতে যাওয়ার আগে বুধবার নয়াদিল্লীতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্করের সাথে সাক্ষাৎ করবেন।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব গ্রহণের পর ভারতে এটি হবে ব্লিনকেনের প্রথম সফর। এ সময় বিশ্বের বৃহত্তম এ দুই গণতান্ত্রিক দেশ- উদীয়মান চীন, ইসলামি জঙ্গিবাদ এবং অন্য চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় নিজেদের স্বার্থ-সংশ্লিষ্ট বিষয় নিয়ে আলোচনা করবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। উল্লেখ্য, ১৯৯০ এর দশকের শেষের দিক থেকে ভারতকে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ক্রমবর্ধমানভাবে ঘনিষ্ঠ হওয়ার পদক্ষেপ নিতে দেখা যায়।

মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী লয়েড অস্টিন তার প্রথম বিদেশ সফরের অংশ হিসেবে নয়াদিল্লী সফর করলেও একশ’ কোটিরও বেশি জনসংখ্যার এ দেশে মহামারি করোনাভাইরাস ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ার প্রেক্ষাপটে ব্লিনকেনের সফর স্থগিত রাখা হয়।

ভারত হচ্ছে আফগান সরকারের ব্যাপারে অতি উৎসাহী সমর্থকদের অন্যতম। ২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বর ভয়াবহ হামলার অভিযোগ এনে দেশটিতে মার্কিন আগ্রাসনের পর আন্তর্জাতিক সহযোগিতায় আফগানিস্তানের এই সরকার দায়িত্ব গ্রহণ করে।

প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন আগস্ট মাসের শেষ নাগাদ আফগানিস্তান থেকে সব মর্কিন সৈন্য প্রত্যাহার করে নেয়ার নির্দেশ দিয়ে বলেন, এ যুদ্ধে অর্জনের আর কিছু নেই।

তালেবান জঙ্গিরা দ্রুত একের পর এক এলাকা দখল করে নেয়া সত্ত্বেও তিনি এমন ঘোষণা দেন। আর এর মধ্যদিয়ে আমেরিকার সবচেয়ে দীর্ঘস্থায়ী যুদ্ধের অবসান ঘটে।