পুরুষদের দাড়ি রাখতেই হবে, নারীরা একা বেরুতে পারবে না: কড়া আইন তালেবানের

নারীরা বাড়ি থেকে পুরুষ অভিভাবক ছাড়া একা বের হতে পারবেন না। পুরুষদেরও লম্বা দাড়ি রাখতেই হবে। উত্তর-পূর্ব আফগানিস্তানে তাকহার প্রদেশে এমন আইন জারি করেছে তালেবান। এমনকি নারীদের বিয়ের জন্য পণ প্রথাও ফিরিয়ে আনার ঘোষণা দিয়েছে সংগঠনটি।

এক বিজ্ঞপ্তিতে তালেবান এসব নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে বলে গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে জানা গেছে।বিষয়টি নিশ্চিত করে তাকহার প্রদেশের সমাজকর্মী মেরাজউদ্দিন জানিয়েছেন, এই চর্চা এরই মধ্যে শুরু হয়ে গেছে অবশ্য তালেবান এ ধরনের অভিযোগকে ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছে।

আফগানিস্তানে ৯০ দশকের তালেবান শাসন ব্যবস্থার কথা মনে করিয়ে দিচ্ছে। সে সময় চুরির জন্য হাত কেটে দেওয়া হতো, পাথর নিক্ষেপ করে মানুষ হত্যা করা হতো, এমনকি নারীদের ওপর ছিল নানা রকম বিধিনিষেধ ।

আফগানিস্তানে মার্কিন সেনা মোতায়েন হওয়ার আগে এসব আইন জারি করেছিল তালেবান। তখন দেশটিতে নারীদের চাকরি তো দূরের কথা, কোনো পুরুষ আত্মীয় ছাড়া বাইরে বের হওয়াও নিষেধ ছিল। এমনকি এই নিয়ম না মানলে কঠোর শাস্তিও ভোগ করতে হতো।

যুদ্ধ বিধ্বস্ত আফগানিস্তান থেকে ধীরে ধীরে সরে যাচ্ছে মার্কিন সেনারা। এরই মধ্যে ফের সক্রিয় হতে শুরু করেছে তালেবান। এরই মধ্যে দেশটির ৪২১টি জেলার মধ্যে ১৪০টি জেলা দখলে নিয়েছে তালেবান।